• ঢাকা
  • |
  • শুক্রবার ১০ই চৈত্র ১৪২৯ বিকাল ০৪:৩৩:২৮ (24-Mar-2023)
  • - ৩৩° সে:

হাত ও পায়ের তালুর চামড়া ওঠা বন্ধে যা করবেন

শীতে অনেকের হাতের চামড়া ওঠে। একই সঙ্গে হাত বেশ খসখসে হয়ে যায়। আবার অনেকের এই চামড়া দাঁত দিয়ে কাটার অভ্যাস রয়েছে। তাদেরও একইভাবে হাত খসখসে হতে দেখা যায়। শীতে এমনিই বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ কম থাকে। এই আর্দ্রতার অভাবে চামড়া শুষ্ক হয়ে যায়। অনেকের আবার হাতের সঙ্গে পায়ের চামড়াও উঠতে দেখা যায়। হঠাৎ করে হাত-পা জুড়ে এভাবে চামড়া উঠতে থাকে তাহলে বাইরের সবার সামনেও অপ্রস্তুত হতে হয়।শীতকালে মুখের যত্ন নেওয়ার পাশাপাশি হাত-পায়েরও যত্ন নেওয়া জরুরি। হাত-পায়ের চামড়া যাতে না উঠে সে ব্যাপারে কিছু ব্যবস্থা নিতে পারেন। যেমন-গুঁড়ো দুধ, চিনি আর অলিভ অয়েলগুঁড়ো দুধ, চিনি আর অলিভ অয়েল একসঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। এবার মিশ্রণটি হাতের চামড়া ওঠা জায়গাগুলিতে ভাল করে লাগিয়ে ফেলুন। ২০ মিনিট পর হাত ভালো করে ঘষে ঘষে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। এরপর সামান্য নারকেল তেল হাতে লাগান। এভাবে লাগিয়ে রাখলে হাতের ত্বক রম হবে। সপ্তাহে একদিন করে এই মিশ্রণ লাগালেই ভালো ফল পাবেন।গোসলের আগে অলিভ অয়েলগোসলের আগে প্রতিদিন হাতে ভালোভাবে অলিভ অয়েল লাগান। এর মধ্যে বিভিন্ন উপকারী ফ্যাটি অ্যাসিড ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস রয়েছে। অলিভ অয়েল না থাকলে নারকেল তেল ব্যবহার করতে পারেন। এই তেল গোসলের পর নিয়মিত হাতে মালিশ করুন। এতে কিছুদিনের মধ্যে সমস্যা কমবে।কাঁচা দুধ ও গরম পানিঅর্ধেক কাপ কাঁচা দুধ ও সম পরিমাণ‌ গরম পানি এক সঙ্গে মিশিয়ে নিন। এবার তুলা দিয়ে ভিজিয়ে ভালো করে হাতের চামড়া ওঠা অংশগুলিতে লাগিয়ে নিন। এতে ত্বক বেশ নরম থাকবে। নিয়মিত এটি করলে কিছুদিনের মধ্যে ভালো ফল পাবেন।গোলাপ জল, লেবুর রস ও কাঁচা দুধগোলাপ জল, লেবুর রস ও কাঁচা দুধ, এই তিনটি উপাদান এক সঙ্গে ভাল করে মিশিয়ে নিন। এবার হাতের নির্দিষ্ট অংশে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে যাওয়ার পর হাত ধুয়ে নিন। দিনের মধ্যে দুবার এটি করলে হাত-পায়ের চামড়া ওঠার সমস্যা কমবে।শ্যাম্পু, একটু লবণএজন্য গরম পানির মধ্যে আধা চামচ শ্যাম্পু, একটু লবণ দিয়ে হাত পা ডুবিয়ে রাখতে পারেন ১০-১৫ মিনিট। ব্রাশ দিয়ে এরপর হাত ও পা ঘষে নিন। মরা চামড়া উঠে যাবে।খাদ্যতালিকাতে সুষম খাদ্যখাদ্যতালিকাতে সুষম খাদ্য রাখুন। পুষ্টিহীনতার কারণে চামড়া ওঠা বন্ধ হবে।