• ঢাকা
  • |
  • শুক্রবার ৩রা শ্রাবণ ১৪৩১ ভোর ০৫:২৬:২৩ (19-Jul-2024)
  • - ৩৩° সে:

বিশ্বকাপের ২১ ম্যাচ শেষে সুপার এইটে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে ১৯ দলেরই


মঙ্গলবার ১১ই জুন ২০২৪ রাত ০৮:৫০



বিশ্বকাপের ২১ ম্যাচ শেষে সুপার এইটে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে ১৯ দলেরই

ছবি: সংগৃহীত

চ্যানেল এস ডেস্ক: 

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসর চলছে। আজ রয়েছে একটি ম্যাচ। যেখানে পাকিস্তানের প্রতিপক্ষ কানাডা। ইতোমধ্যে ৫৫টি ম্যাচের মধ্যে ২১টি ম্যাচ শেষ হয়ে গিয়েছে, বাকি রয়েছে ১৯টি ম্যাচ। ২০ দলের মধ্যে একটি দল আসর থেকে ছিটকে গেছে। তবে এখন পর্যন্ত সুপার এইটের রেসে টিকে রয়েছে ১৯টি দল। যদিও সেখান থেকে যাওয়ার সুযোগ পাবে মাত্র ৮টি দল। দেখে নেব কোন গ্রুপ থেকে কোন দলের সুপার এইটে যাওয়ার সুযোগ কেমন। 

গ্রুপ এ- যেখানে রয়েছে ভারত, পাকিস্তান, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও আয়ারল্যান্ড। এ গ্রুপে বেশ ভালো অবস্থানে রয়েছে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র। সুযোগ রয়েছে কানাডা ও পাকিস্তানের সামনেও। তবে সেটা যদি-কিন্তুর ওপর ঝুলছে। দেখে নেব এই গ্রুপে কার সামনে কি সমীকরণ। 

  • ২০০৭ এর চ্যাম্পিয়ন ভারত ৪ ম্যাচের মধ্যে ২টিতে জয় তুলে নিয়ে ৪ পয়েন্ট পেয়েছে। তাদের নেট রানরেট ১.৪৫৫। নেট রানরেট হিসেবে গ্রুপের বাকি চার দল থেকে যা অনেক বেশি। বাকি আরও দু’টি ম্যাচ। আমেরিকা ও কানাডার মধ্যে একটি ম্যাচ জিতলেই সুপার এইট নিশ্চিত রোহিত-কোহলিদের। কানাডাকে যদি ভারত হারাতে পারে তা হলে শেষ আট নিশ্চিত তাদের। 
  • এবারের আসরের নবাগত দল আমেরিকা। তারাও ইতোমধ্যে ২টি ম্যাচ খেলে ৪ পয়েন্ট আদায় করে নিয়েছে। তাদের নেট রানরেট ০.৬২৬। অন্য তিন দল থেকে তারাও রয়েছে ভালো অবস্থানে। ভারত ও আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচ বাকি তাদের। এই দুই ম্যাচের মধ্যে অন্তত একটি জিততে হবে। কানাডা যদি পয়েন্ট নষ্ট করে তা হলেই সুপার এইট পাকা হয়ে যাবে আয়োজক দেশের। 
  • কানাডাও এবারের আসরে নতুন। তারা একটি ম্যাচে জয়লাভ করে ২ পয়েন্ট আদায় করেছে। নেট রানরেট -০.২৭৪। পাকিস্তান ও ভারতের বিরুদ্ধে দু’টি ম্যাচ বাকি। পরের রাউন্ডে যেতে দু’টিতেই জিততে হবে। সেই সঙ্গে ভারত যদি আমেরিকার কাছে হারে তবেই সুপার এই পাকা তাদের। 
  • ২০০৯ সালের চ্যাম্পিয়ন ও ২০২২ সালের রানার্সআপ পাকিস্তান দুই ম্যাচের দুটিতেই হেরেছে। তাদের নেট রানরেট -০.১৫০। বাকি দু’টি ম্যাচ কানাডা ও আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে জিততেই হবে বাবরদের। অন্যদিকে আমেরিকাকে বাকি দু’টি ম্যাচ হারতে হবে। কানাডাকেও ভারতের কাছে হারতে হবে। তবেই সুপার এইটে যেতে পারবেন বাবর আজমেরা। 
  • এর আগেও আয়ারল্যান্ড বিশ্বকাপে খেলেছে। দুটি ম্যাচে তারা হেরেছে। তাদের নেট রানরেট -১.৭১২। পরের দুই ম্যাচে আমেরিকা ও পাকিস্তানকে বড় ব্যবধানে হারাতে হবে। কানাডাকে পাকিস্তানের কাছে ও আমেরিকাকে ভারতের কাছে হারতে হবে। তবেই নেট রানরেটের অঙ্কে পরের ধাপে যেতে পারবে আয়ারল্যান্ড। 

গ্রুপ বি- যেখানে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড, ওমান ও নামিবিয়া। এ গ্রুপে বেশ ভালো অবস্থানে রয়েছে স্কটল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া। সুযোগ রয়েছে নামিবিয়া ও ইংল্যান্ডের সামনেও। তবে সেটা যদি-কিন্তুর ওপর ঝুলছে। দেখে নেব এই গ্রুপে কার সামনে কি সমীকরণ। 

  • স্কটল্যান্ডের একটি ম্যাচ বাকি। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়া। তিন ম্যাচ থেকে ৫ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে টেবিলের শীর্ষে। নেট রানরেট ২.১৬৪। অজিদের বিপক্ষে জিতলে সুপার এইট পাকা। না জিতলেও সুযোগ রয়েছে। ইংল্যান্ড পয়েন্ট নষ্ট করলেই পরের রাউন্ডে চলে যাবে স্কটল্যান্ড। 
  • ২০২১ সালে চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। দুটি ম্যাচ থেকে ৪ পয়েন্ট নিয়েছে। তাদের নেট রানরেট ১.৮৭৫। বাকি দুটি ম্যাচে প্রতিপক্ষ নামিবিয়া ও স্কটল্যান্ড। একটি ম্যাচ জিতলেই সুপার এইট নিশ্চিত। 
  • এর আগেও বিশ্বকাপে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে নামিবিয়ার। দুই ম্যাচ থেকে ২ পয়েন্ট পেয়েছে তারা। নেট রানরেট -০.৩০৯। বাকি দুই ম্যাচে প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যাড।দু’টিতেই জিততে হবে। স্কটল্যান্ডও যদি অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারে তা হলে সুপার এইট এ পৌঁছে যাবে নামিবিয়া। 
  • দুইবারের চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড। বৃষ্টিতে ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ায় ঝুলিতে রয়েছে ১ পয়েন্ট। নেট রানরেট -১.৮০০। চাপে রয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। নামিবিয়া ও ওমানের বিরুদ্ধে ম্যাচে জিততে হবে। স্কটল্যান্ড যদি অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারে তা হলে সুপার এইটে যাবে জস বাটলাররা। 
  • এবারের আসরে নতুন দল ওমান। ইতোমধ্যে তিনটি ম্যাচ হেরে বিশ্বকাপের একমাত্র দল হিসেবে বিদায় নিয়েছে। কোনোভাবেই পরের রাউন্ডে যেতে পারবে না তারা। 

গ্রুপ সি- যেখানে রয়েছে আফগাস্তিান, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নিউজিল্যান্ড, উগান্ডা ও পাপুয়া নিউগিনি। এ গ্রুপে বেশ ভালো অবস্থানে রয়েছে আফগাস্তিান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সুপার এইটের সুযোগ রয়েছে নিউজিল্যান্ড ও উগান্ডার সামনেও। তবে সেটা যদি-কিন্তুর ওপর ঝুলছে। দেখে নেব এই গ্রুপে কার সামনে কি সমীকরণ। 

  • স্পিন নির্ভর দল আফগানিস্তান। তারা দুটি ম্যাচ থেকে ৪ পয়েন্ট পেয়েছে। নেট রানরেট ৫.২২৫। টেবিল টপার তারা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাপুয়া নিউগিনির মধ্যে একটি ম্যাচ জিতলেই সুপার এইট নিশ্চিত রশিদ খানদের। 
  • দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ। টুর্নামেন্টের স্বাগতিক দেশও তারা। তারাও দুই ম্যাচ থেকে ৪ পয়েন্ট আদায় করে নিয়েছে। নেট রানরেট ৩.৫৭৪। নিউজিল্যান্ড ও আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ থেকে একটিতে জিততে পারলেই শেষ আটে পৌঁছে যাবেন আন্দ্রে রাসেলরা। 
  • নবাগত দল উগান্ডা। ২ পয়েন্ট ঝুলিতে পুরেছে। নেট রানরেট -৪.২১৭। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে বড় জয় দরকার। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আফগানিস্তান ও নিউজিল্যান্ডের কাছে বড় ব্যবধানে হারতে হবে। তবেই সুযোগ থাকবে তাদের।
  • পাপুয়া নিউগিনির ঝুলিতে কোনো পয়েন্ট নেই। নেট রানরেট -০.৪৩৪। আফগানিস্তান ও নিউজিল্যান্ডকে হারালে ৪ পয়েন্ট হবে তাদের। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আফগানিস্তান ও নিউজিল্যান্ডের কাছে বড় ব্যবধানে হারতে হবে। তবেই সুযোগ থাকবে তাদের। 
  • নিউজিল্যান্ডের ঝুলিতেও নেই কোনো পয়েন্ট। তাদের নেট রানরেট -৪.২০০। ওয়েস্ট ইন্ডিজ, উগান্ডা ও পাপুয়া নিউগিনিকে হারাতে হবে। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আফগানিস্তানের কাছে হারতে হবে। তা হলে সুপার এইট নিশ্চিত হবে কেন উইলিয়ামসনদের। 

গ্রুপ ডি- যেখানে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, নেদারল্যান্ডস ও নেপাল। এ গ্রুপে বেশ ভালো অবস্থানে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও বাংলাদেশ। সুপার এইটের সুযোগ রয়েছে নেদাল্যান্ডস, শ্রীলঙ্কা ও নেপালের সামনেও। তবে সেটা যদি-কিন্তুর ওপর ঝুলছে। দেখে নেব এই গ্রুপে কার সামনে কি সমীকরণ। 

  • দক্ষিণ আফ্রিকা টানা তিন ম্যাচ জিতে ৬ পয়েন্ট ঝুলিতে পুরেছে। তাদের নেট রানরেট ০.৬০৩। নেপালের বিরুদ্ধে একটি ম্যাচ বাকি। সেটা জিতলেই প্রোটিয়ারা সুপার এইটে চলে যাবে। 
  • বাংলাদেশ দুই ম্যাচ থেকে ২ পয়েন্ট পেয়েছে। নেট রানরেট ০.০৭৫। নেদারল্যান্ডস ও নেপালকে হারালে ৬ পয়েন্ট হবে। সেক্ষেত্রে সুপার এইট এ উঠে যাবেন সাকিব-লিটনরা। 
  • নেদারল্যান্ডসের ঝুলিতে রয়েছে ২ পয়েন্ট। তাদের নেট রানরেট ০.০২৪। বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কাকে হারাতে পারলে ৬ পয়েন্ট হবে তাদের। নেপাল একটি ম্যাচ হারলেই সুপার এইট নিশ্চিত হবে নেদারল্যান্ডসের। 
  • নেপাল তাদের ঝুলিতে নেই কোনো পয়েন্ট। নেট রানরেট -০.৫৩৯। দক্ষিণ আফ্রিকা, বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কাকে হারাতে হবে। নেদারল্যান্ডস একটি ম্যাচ হারলেই সুপার এইট নিশ্চিত হবে। 
  • শ্রীলঙ্কা দুই ম্যাচ খেলে পয়েন্ট শূন্য। নেট রানরেট -০.৭৭৭। নেপাল ও নেদারল্যান্ডসকে হারাতে হবে। বাংলাদেশকে নেদারল্যান্ডসের কাছে হারতে হবে। তবেই ৪ পয়েন্ট নিয়ে নেট রানরেটের বিচারে পরের রাউন্ডে যাবে শ্রীলঙ্কা। 

মন্তব্য করুনঃ


সর্বশেষ সংবাদ





















-->