১ কোটি ৮০ লাখ ছাড়াল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা

বিশ্বজুড়ে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রকোপ যে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে তা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দৈনিক আক্রান্তের রেকর্ড দেখলেই বোঝা যাচ্ছে। প্রতিদিন প্রায় ৩ লাখেরও বেশি মানুষের দেহে নতুন করে ভাইরাসটির সংক্রমণ শনাক্ত হচ্ছে। রোববার সকালে ওয়ার্ল্ডোমিটারের দেওয়া তথ্যে মোট আক্রান্ত ১ কোটি ৮০ লাখ ছাড়িয়েছে।

দেশে দেশে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জারি করা কঠোর বিধি-নিষেধগুলো প্রত্যাহার কিংবা শিথিল করার পর থেকে দ্রুত ভাইরাসটির বিস্তার ছড়াচ্ছে। একের পর এক ভাঙছে দৈনিক আক্রান্তের রেকর্ড। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানিয়েছে, গত শুক্রবার নতুন করে ২ লাখ ৯২ হাজার রোগী শনাক্ত হয়েছে বিশ্বজুড়ে।অপরদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সতর্ক করে দিয়ে বলছে, করোনা মহামারি দীর্ঘদিন ধরেই চলবে।

লকডাউন নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার কারণে বিশ্বজুড়ে সংক্রমণ বাড়ছে। ভাইরাসটি প্রতিরোধে প্রত্যেক দেশকে তার নিজের সীমানার মধ্যে আরও কঠোর হয়ে সংক্রমণ রোধে পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। জুন কিংবা জুলাইয়ের শুরুতেও বিশ্বে করোনায় দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা ছিল পাঁচ হাজারের কম। কিন্তু জুলাইয়ের মাঝামাঝি থেকে ধীরে ধীরে এই সংখ্যাটাও বাড়তে শুরু করেছে।

ডব্লিউএইচও এর হাতে আসা তথ্য অনুযায়ী এখন প্রতিদিন প্রায় ৭ হাজার করে কোভিড-১৯ রোগী মারা যাচ্ছে বিশ্বজুড়ে। বিশ্বে একদিনে সর্বোচ্চ সংখ্যক কোভিড-১৯ রোগী শনাক্তের খবর দিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা প্রাত্যহিক প্রতিবেদনে বলেছে, এখন বেশিরভাগ রোগীর সংক্রমণ ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকায়। করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুতে দীর্ঘদিন ধরেই শীর্ষে রয়েছে এসব দেশ।

শীর্ষস্থানে থাকা যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৪৮ লাখ। দেশটিতে করোনায় ইতোমধ্যে মারা গেছে ১ লাখ ৫৮ হাজার মানুষ। ব্রাজিলে আক্রান্ত ২৭ লাখের বেশি মানুষের মধ্যে ৯৩ হাজার ৬১৬ জন আর বেঁচে নেই। প্রতিবেশি ভারতেও আক্রান্ত সাড়ে ১৭ লাখ; প্রাণহানি ৩৭ হাজার ৪০৩ জন। ভারতে প্রতিদিনই করোনায় আক্রান্তের নতুন রেকর্ড তৈরি হচ্ছে।