১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন পর্ব শেষে মুক্ত টাইগাররা

নিউজিল্যান্ড সফররত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সব সদস্য ও সাপোর্টিং স্টাফের চতুর্থ করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

রিপোর্ট পাওয়ার পর বাংলাদেশ দলের সব সদস্য ও সাপোর্টিং স্টাফদের নিউজিল্যান্ডে অবাধে চলাচলের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন পর্ব শেষ করার আগে চতুর্থ করোনা পরীক্ষা দেয় বাংলাদেশ।

বুধবার (১০ মার্চ) ক্রাইস্টচার্চে আইসোলেশন ও কোয়ারেন্টাইন থেকে মুক্তি পায় বাংলাদেশ দল।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বর্তমানে নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে অবস্থান করা বিসিবি মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস জানান,

‘এখানে চতুর্থ পরীক্ষায় খেলোয়াড়, দলের সদস্য ও সাপোর্টিং স্টাফদের রিপোর্টে নেগেটিভ এসেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আইসোলেশন ও কোয়ারেন্টাইনে আমাদের সহযোগিতায় সংশ্লিষ্ট নিউজিল্যান্ড ম্যানেজমেন্টের ওপর আমরা সন্তুষ্ট।’

তিনি আরও জানান, লিঙ্কনে আজই শেষবারের মত গ্রুপ অনশীলন করবে দল।

১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইন পর্ব বুধবার দুপুরের দিকে কুইন্স টাউনের উদ্দেশে ক্রাইস্টচার্চ ছাড়বে বাংলাদেশ।

সেখানে পাঁচ দিনের ক্যাম্প করবে তারা। ক্যাম্প শেষে ১৬ মার্চ ডুনেডিন রওনা দেবে টাইগাররা।

নিউজিল্যান্ডের নিয়মানুযায়ী, ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষে বাইরে অবাধে চলাফেরা করা যাবে।

তাই নিয়মানুসারে, এখনো যে কোনো জায়গায় নির্দ্বিধায় চলাফেরা করতে পারবে বাংলাদেশ।

নিজ দেশে কোনো টুর্নামেন্ট কিংবা সিরিজে কঠিন জৈব সুরক্ষাবলয়ে থাকলেও বাংলাদেশ দল এমন সুযোগ-সুবিধা পায় পায়নি।

ডুনেডিনের ইউনিভার্সিটি অব ওটাগোতে আগামী ২০ মার্চ প্রথম ওয়ানডে সিরিজ শুরু হবে।

ক্রাইস্টচার্চের হাগলি ওভালে ২৩ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে। ২৬ মার্চ ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভে হবে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে।

প্রথম ও তৃতীয় ওয়ানডে শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল ৪টায়। আর দ্বিতীয় শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায়।

হ্যামিল্টনের সেডন পার্কে ২৮ মার্চ বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায় শুরু হবে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচ।

৩০ মার্চ ও পহেলা এপ্রিল হবে পরের দুটি টি-টোয়েন্টি। শেষ দুটি টি-টোয়েন্টি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২টায়।