হোম কোয়ারেন্টন মানছে না চাঁদপুরের গ্রাম ও চরাঞ্চলের মানুষ

মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার, চাঁদপুর প্রতিনিধিঃ সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাস মহামারি আকার ধারন করেছে।সরকার ছুটি ঘোষনা করে কর্মস্থলে থাকা মানুষদের নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসেবে গৃহে হোম কোয়ারেন্টে থাকতে বলেছে। কিন্তু চাঁদপুর জেলা সদর ও উপজেলা গুলোতে হোম কোয়ারেন্টে আসা মানুষ গুলো গৃহে না থেকে সর্বত্র ঘুরে বেরাচ্ছে। তারা সরকারের নির্দেশনা মানতে নারাজ। চাঁদপুর শহরে প্রথম প্রথম কয়েক দিন রাস্তা ঘাটে জনগন না থাকলে ও এখন পূর্বের ন্যায় মানুষ শহরে বিচরন করছে। জেলা প্রশাসন কিংবা পুলিশ প্রশাসন জনগনকে প্রতিনিয়ত শতর্ক করলেও তারা তা মানছে না। বিভিন্ন শহর অর্থাৎ ঢাকা, চট্টগ্রাম ও অন্যান্য জেলা থেকে এসেছেন তারা নিজ বাড়ি বা ঘরে থাকার কথা, কিন্তু তারা নিরাপদে না থেকে এলাকার চায়ের দোকানে, মুদি দোকানে বসে আড্ডা দিচ্ছে। গত ২৬মার্চ থেকে সরকার অনিদিস্টকালের জন্য ছুটি ঘোষণা করে। আর এ ছুটি দেয়া হয় নিজ গৃহে নিরাপদে থাকার জন্য। নিরাপদে তারা না থেকে দেদারচে ঘুরে বেরাচ্ছে। গতকাল চাঁদপুর সদর উপজেলার রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নে গিয়ে দেখা যায়, বাজার গুলো যেন জনতার পদচারনায় মুখরিত। চায়ের দোকান গুলোতে ১৫/২০ জন করে বসে ক্রেতা গল্পে মশগুল। শুধু রাজরাজেশ্বর নয়, তরপুরচন্ডি, আনন্দ বাজার, চৌরাস্তা, কালি বাড়ি মোড়সহ অনেক সবখানেই জনতার সমাগম। এ সমাগম যদি রোধ করা না যায় তাহলে চাঁদপুরে করোনার আক্রমন হানা দিতে পারে বলে সচেতন মহল মনে করে।