হেফাজত নেতা মাওলানা মামুনুল ফের ৫ দিনের রিমান্ডে

হেফাজতে ইসলামের বিলুপ্ত কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক মামুনুল হককে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি দিয়েছেন আদালতে।

সাত দিনের রিমান্ড শেষে মঙ্গলবার (৪ মে) দুপুর ১২টার দিকে মামুনুল হককে পুলিশি নিরাপত্তায় ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে আনা হয়।

পল্টন থানার নাশকতার দুই মামলায় মামুনুল হকের ১৭ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ।

ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদার শুনানি শেষে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এ নিয়ে মামনুল হককে মোট তিন দয়ায় রিমান্ডে নেওয়া হচ্ছে।

দ্বিতীয় দফায় গত ২৬ এপ্রিল পল্টন থানায় দায়ের করা মামলায় চার দিন ও মতিঝিল থানার মামলায় শুনানি শেষে তিনদিনসহ

মোট সাতদিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরীর আদালত।

এর আগে গত ১৯ এপ্রিল মামুনুলকে আদালতে তোলা হয়। আগেই তার বিরুদ্ধে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করে পুলিশ।

শুনানি শেষে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ১৮ এপ্রিল দুপুরে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া মাদ্রাসা থেকে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরের সময় ২৬ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত সহিংসতায় সারাদেশে ১৭ জনের মৃত্যু হয়।

এসব সহিংসতার ঘটনায় সারাদেশে প্রায় অর্ধশতাধিক মামলা হয়েছে। মামুনুলকে এসব ঘটনার মূল ইন্ধনদাতা মনে করছে পুলিশ।

ডিএমপি সূত্রে জানা যায়, গত ২৬ মার্চ জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে সহিংসতার ঘটনায় ৫ এপ্রিল মামুনুল হকসহ ১৭ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়।

মামলায় দুই হাজার ব্যক্তিকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়।