হালুয়াঘাট গোবড়াকুড়া সিমান্তে বিএসএফ এর গুলিতে এক বাংলাদেশী নিহত

এম.এ মালেক, হালুয়াঘাট (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার গোবড়াকুড়া সীমান্তের ভারতীয় সীমানার প্রায় দুইশত গজ অভ্যান্তরে ভারতীয় সিমান্ত রক্ষাকারি বাহিনী বিএসএফ এর গুলিতে মানসিক ভারসাম্যহীন এক বাংলাশেী নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার সকালে গোবড়াকুড়া সিমান্ত এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তি উপজেলার পশ্চিম গোবরাকুড়া গ্রামের আব্দুল মালেকের পুত্র আব্দুল জলিল (৪০)। নিহতের বড় ভাই শুকুর আলীসহ স্থানীয়রা জানান, গত সোমবার (২২ জুন) রাতে বাড়ি থেকে নিখোজ হয় মানসিক ভারসাম্যহীন আব্দুল জলিল (৪০)। পরে মঙ্গবার (২৩ জুন) সকালে সিমান্ত এলাকায় বিএসএফ এর গুলিতে একজন নিহত হওয়ার খবর পেয়ে স্থানীয় সিমান্ত ফাড়ির বিজিবির সদস্যদের অবগত করেন।

প্রাথমিক ভাবে জানতে পারেন নিহত ব্যক্তি তার ভাই আব্দুল জলিল। বিজিবি সদস্যরা পরে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে নিহতের লাশ উদ্ধার করতে বিকাল পাঁচটায় ভারতীয় সিমান্ত রক্ষাকারি বাহিনী বিএসএফ এর উর্ধ্বতন কতৃপক্ষের সাথে সীমান্তের ১১২৫ নং পিলার সংলগ্ন স্থানে বাংলাদেশ বডারগার্ড ৩৯ বিজিবির সিও তৌহিদুল ইসলাম এর নেতৃত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

৩৯ বিজিবির সিও তৌহিদুল ইসলাম স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে তারা নিহতের লাশ উদ্ধারের চেষ্টা করেছেন। কিন্ত ভারতীয় বিএসএফ এর পক্ষ থেকে মেডিকেল রিপোট তৈরি করতে না পারার জন্য লাশ হস্তান্তর করতে পারেন নি। বুধবার সকাল থেকে দুপুরের মধ্যে লাশ হস্তান্তর সম্পন্ন করা হবে বলে বিএসএফ এর পক্ষ থেকে জানানো হয়।

প্রাথমিক ভাবে বিজিবি নিহতের পরিচয় সনাক্ত করতে পারেন নি বলে জানান। হালুয়াঘাট থানার পুলিশ পরির্দশক (তদন্ত) আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, সিমান্তে বিএসএফ এর গুলিতে এক বাংলাদেশী নিহত হয়েছেন এমন সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন। পাশাপাশি নিহত বাংলাদেশীর লাশ উদ্ধার করতে সিমান্তে গিয়েছিলেন। বিএসএফ এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে বুধবার লাশ হস্তান্তর করা হবে।