হারিয়ে যাওয়া প্রতিবন্ধী শিশুকে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিলো পুলিশ

সড়কে কুড়িয়ে পাওয়া এক শারীরিক ও বাক-প্রতিবন্ধী কিশোর কাবির আলীকে (১৪) তার বাবা-মা ও স্বজনদের কাছে ফিরিয়ে দিয়েছে পাবনা জেলা পুলিশ।  গত ৩ নভেম্বর বাক-প্রতিবন্ধী শিশুকে জরাজীর্ণ অবস্থায় পাবনার সদর থানার অন্তর্ভুক্ত রাধানগরে পাওয়া যায়।

পরে পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাছিম আহমেদের কাছে তাকে হস্তান্তর করা হয়।

শনিবার (১৪ নভেম্বর) দুপুরে এক প্রেস বিফ্রিংয়ের মাধ্যমে হারিয়ে যাওয়া শিশুটিকে তার পরিবারের হাতে তুলে দেন পাবনা জেলার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম বিপিএম পিপিএম ও পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাছিম আহমেদ।

এ সময় পাবনার পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলাম বিপিএম, পিপিএম কিশোরের জন্য বাবা-মায়ের হাতে নগদ ১০ হাজার টাকা এবং পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম আহমেদ ৫ হাজার টাকা দেন।

শারীরিক বাক-প্রতিবন্ধী কিশোর কাবির আলী চাপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ থানার মরদানা গ্রামের কৃষক নুরুল হুদা ও রোজিনা বেগম দম্পতির ছোট ছেলে। তিন ভাই এর মধ্যে সে সর্বকনিষ্ঠ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, পাবনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এবি এম ফজলুর রহমান, সাংবাদিক এস এম আলম, কাজী মাহবুব মোর্শেদ বাবলা,পাভেল মৃধা, মুস্তাফিজুর রহমান রাসেল, এস এম আদনান উদ্দিন,জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন (জেএসকেএফ) পাবনা জেলা শাখার প্রচার সম্পাদক মো. ইয়াছিন শেখ প্রমুখ।

জানা যায়, গত মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) পাবনা শহরের জনৈক ব্যক্তি এই কিশোর ছেলেটিকে সড়কে পেয়ে নিরাপত্তার জন্য দ্রুত থানাতে হস্তান্তর করেন।