হাকিমপুরে আনসার ভিডিপি কর্মকর্তার মামলায় দুই যুবক হয়রানি

মোঃ লুৎফর রহমান,হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের হাকিমপুরে আনসার ভিডিপি কর্মকর্তার মামলায় পৌরসভা এলাকার মধ্য বাসুদেবপুর রেল কলোনীর আব্দুল রাবেকের ছেলে মহর আলী, ও মৃত্যু আব্দুল রাজ্জাক হোসেনর ছেলে ফারুক হোসেন নামের দুই নিরীহ যুবককে হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছে। এদিকে গ্রেফতার হওয়ার ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন তারা।

অভিযোগ জানা যায়, উপজেলার আনসার ভিডিপির গত বছরে দুর্গাপুজার সদস্য বাছাই সময় কিছু সদস্য বাদ পড়লে তাদেও সাথে বাকবিতন্ডা হয় এক পর্যায় মারামারি হয়।

এ ঘটনায় কেন্দ্র করে হাকিমপুর উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা রেজেনা পারভীন বাদী হয়ে গত ২৪ সেপ্টেম্বও ২০১৯ সালে ৭ জন আসামী করে মামলা দায়ের করেন। যাদের আসামি করা হয় তাদের মধ্যে দুইজন কেউই এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিল না।

মামলার ৫ নম্বর আসামি ফারুক ও ৭ নম্বর মহর জানান, আমাদের নামে মিথ্য মামলা দিয়ে জড়ানো হয়েছে। এদিকে মামলার সাক্ষীরা বলেন, ফারুক ও মহর মারামারি সময় সেখানে ছিলনা ভয়ভীতি প্রদর্শন ও হত্যার হুমকি দেয়নি তারা নিরপরাধ।

স্থানীয়রা রাজু আহম্মেদ ও সুফিকুল ইসলাম বলেন, ফারুক ও মহরকে আনসার ভিডিপির সদস্যদের সেইদিন কোন মারামারি করতে দেখিনি। তাদের নামে মিথ্য মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে।

আনসার ভিডিভি কর্মকর্তা রেজেনা পারভীন সাথে মুঠো ফোনের বলেন, আমি মামলার এজাহারে ফারুক ও মহর নামে কোন অভিযোগ দেইনি। তাদের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ আমার নেই।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হাকিমপুর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাহে আলম বলেন, তদন্ত করেই আসামিদের নামে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।