হবিগঞ্জ জেলায় আরো ৫ জন বেড়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা হয়েছে ১৮ জন

 সুশীল চন্দ্র দাস, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ জেলায় আরো ৫ জন বেড়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা হয়েছে ১৮ জন। নতুন আক্রান্তদের দুইজন নারী এবং তিনজন পুরুষ। এদের বয়স ২০ থেকে ৪০ বছর পর্যন্ত। তবে আক্রান্তদের কারো তেমন কোন উপসর্গ ছিল না বলে জানিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।
হবিগঞ্জের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মুখলেছুর রহমান উজ্জ্বল গতকাল বুধবার দিবাগত রাত ১১টা তথ্য নিশ্চিত করেছেন। সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকল কলেজ হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষায় শুধু করোনা পজেটিভ আসা ৫ রোগীর তালিকা এসেছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। নতুন আক্রান্ত ৫ জনের মধ্যে রয়েছেন হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার ২০ বছর বয়সী যুবতি ও ৩০ বছর বয়সী পুরুষ, মাধবপুর উপজেলার বহরা ইউনিয়নের ঘিলাতলী গ্রামের ৪০ বছর বয়সী এক নারী, লাখাই উপজেলার মনতৈল গ্রামের ৩৮ বছর বয়সী পুরুষ ও চুনারুঘাট উপজেলার উবাহাটা ইউনিয়নের তাউশী গ্রামের ৩০ বছর বয়সী এক পুরুষ। এদের মধ্যে লাখাই উপজেলার আক্রান্ত ব্যক্তি ঢাকার মধুবাগে সব্জির ব্যবসা করতেন।
প্রায় দুই সপ্তাহ পূর্বে পায়ে আঘাত পেয়ে তিনি বাড়িতে আসেন। হবিগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. একেএম মোস্তাফিজুর রহমান জানান, নতুন আক্রান্ত ৫ জনের তেমন কোন উপস্বর্গ ছিল না। স্ব স্ব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তারা নিজে থেকেই এসে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দিয়ে যান। এছাড়া চুনারুঘাটের আক্রান্ত ব্যক্তি একটি ফার্মেসীতে কাজ করতেন। যে কারণে তার বিষয়টি বিপজ্জনক। আক্রান্তদের একজনের সামান্য কাশি থাকলেও বাকীদের তেমন কোন উপস্বর্গ ছিল না।
হবিগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) অমিতাভ পরাগ তালুকদার বলেন, আক্রান্তরা সকলেই তাদের বাড়িতে রয়েছেন। করোনা পজেটিভ জানার পরপরই সকলের পরিবার লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। শীঘ্রই আক্রান্তদেরকে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে নিয়ে আসা হচ্ছে নারায়নগঞ্জ থেকে হবিগঞ্জে আসা এক ব্যক্তির নমুনায় করোনা পজেটিভ আসে। এরপর ২০ এপ্রিল এক চিকিৎসক ও এক নার্সসহ ১০ জন এবং ২১ এপ্রিল একজন নার্সসহ করোনা পজেটিভ আসে ২ জনের নমুনায়। সবমিলিয়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা হয়েছে ১৮ জন।