হবিগঞ্জে ঈদে যাওয়া হলো না, নানা বাড়ি নৌকা থেকে পড়ে দুই শিশুর মৃত্যু

 সুশীল চন্দ্র দাস, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে পরিবারের সাথে নানা বাড়ি যাচ্ছিল পপি (১২) ও মণি (১০)। কিন্তু সেই আনন্দ আর নানা বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছালো না। মাঝ হাওরে নৌকা থেকে পড়ে চলে যেতে হলো না ফেরার দেশে।

ঈদ আনন্দের পরিবর্তে নিহতদের পরিবারে চলছে শোকের মাতম। শনিবার (১ আগস্ট) ঈদের দিন এমন মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার তিমিরপুর গ্রামে। নিহত পপি উপজেলার পশ্চিম তিমিরপুর গ্রামের মনাই মিয়ার মেয়ে ও মণি একই গ্রামের সালাম মিয়া মেয়ে।

জানা যায়, পপি ও মণিসহ পাঁচ ভাই বোন মিলে নৌকাযোগে পাশ্ববর্তি গ্রামে নানার বাড়ি যাচ্ছিল। মাঝ হাওরে তাদের নৌকাটি যাওয়ার পর সকলের অগোচরে পপি ও মণি নৌকা থেকে পানিতে পড়ে যায়। তাদের সাথে থাকা অন্য ভাই বোনও শিশু হওয়ায় তারা বিষয়টি আঁচ করতে পারেনি।

কিন্তু দূর থেকে একজন জেলে নৌকা থেকে তাদের পড়ে যাওয়ার বিষয়টি দেখে চিৎকার করতে থাকে। পরে নৌকায় থাকা অন্যদের ডেকে বিষয়টি জানালে অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাদের নিথর দেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত পপি এবং মণির চাচাতো ভাই কামাল মিয়া বলেন,

ঈদের দিনে এমন দুঃসংবাদ আমাদের আকাশ ভেঙে মাথায় পড়েছে। মেনে নিতে খুবই কষ্ট হচ্ছে যে পপি ও মণি আর আমাদের মধ্যে নেই।