হবিগঞ্জে আজমিরীগঞ্জ সংঘর্ষের ১০ দিন পর আহত যুবকের মৃত্যু

সুশীল চন্দ্র দাস, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ উপজেলার কাকাইলছেও ইউনিয়নের কামালপুর গ্রামে সংঘর্ষের ১০ দিন পর কালারাজা মিয়া (৩২) নামে আহত যুবক মারা গেছেন। নিহত কালারাজা মিয়া কামালপুর গ্রামের মৃত মতি মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ৯ এপ্রিল হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ উপজেলার কাকাইলছেও ইউনিয়নের কামালপুর গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রউফ মিয়ার ছেলে জাবেদ মিয়া (৪২) এবং লাল মিয়া মেম্বার (৬০) এর মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষের ছোড়া ফিকলে বুকে আঘাতপ্রাপ্ত হন কালারাজা মিয়া।

উক্ত সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হন। সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে আজমিরীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। এসময় গুরুতর আহত অবস্থায় ছেলে কালারাজা মিয়া ও হোসেন আলী (২৬)কে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

৯ দিন চিকিৎসা শেষে গত ১৮ এপ্রিল কালারাজা মিয়াকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ছাড়পত্র প্রধান করে ১০দিন পর পুনরায় চেকআপের জন্য হাসপাতালে যেতে বলেন। বাড়িতে আসার পর ১৯ এপ্রিল রাতে কালারাজা মিয়া আঘাতের স্থানে ব্যাথা অনুভব করলে পরিবারের সদস্যরা ভোরে কালারাজা মিয়াকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কালারাজা মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে আজমিরীগঞ্জ থানা পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে লাশ ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ ব্যপারে আজমিরীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক নাসির জানান- খবর পেয়ে আমরা হাসপাতালে গিয়ে লাশ ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করি এবং ময়না তদন্ত শেষে লাশ কামালপুরে দাফন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এ ব্যপারে এখন পর্যন্ত কোনো দায়ের করা হয়নি।