হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে এম এ গফুর কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্দ্যাগে অসহায় শীতার্তদের মধ্যে কম্বল বিতরন

বুলবুল আহমদ, নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: এম এ গফুর কল্যাণ ট্রাস্ট এর উদ্যোগে গরীব শীতার্থ লোজনের মধ্যে শীতবস্ত্র (কম্বল) বিতরন করা হয়েছে।

শনিবার দুপুরে নবীগঞ্জের কুর্শি সরকার বাড়িতে এম এ গফুর চৌধুরী কল্যাণ ট্রাস্ট এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুর রহিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্টানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত শেষে সাংবাদিক এম মুজিবুর রহমান ও সাংবাদিক মহিবুর রহমান চৌধুরী তছনু’র পরিচালনায় যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বিশিষ্ট সাংবাদিক ফয়জুল ইসলাম চৌধুরী নয়ন তত্ত্বাবধানে ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী মছনু আহমদ চৌধুরীর সার্বিক সহযোগীতায় উক্ত অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, নবীগঞ্জ- বাহুবল আসনের সাবেক এমপি এম এ মুনিম চৌধুরী বাবু, বিশেষ অতিথি নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম, হবিগঞ্জ জনতার এক্সপ্রেস পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক মোঃ ফজলুর রহমান, হবিগঞ্জ প্রেুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুুসক্লাবের সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ নাহিজ, সাধাণ সম্পাদক সাহেদুজ্জামান জাহির, সাবেক সাধারন সম্পাদক সৈয়দ এখলাছুর রহমান খোকন, নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব সাইফুল জাহান চৌধুরী, নবীগঞ্জ প্রেসক্লাব এর সভাপতি মোঃ সরওয়ার শিকদার, সাধারন সম্পাদক মোঃ আলমগীর মিয়া, ৬নং কুর্শি ইউপি সদস্য আলামিন খাঁন। উক্ত অনুষ্টানে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, হবিগঞ্জের সময় পত্রিকার সম্পাদক মোঃ সেলিম মিয়া তালুকদার, চ্যানেল এস প্রতিনিধি বুলবুল আহমদ, বাংলা টিভির প্রতিনিধি মতিউর রহমান মুন্না, জয়যাত্রা টিভির প্রতিনিধি ছনি চৌধুরী, আজকের হবিগঞ্জ প্রতিনিধি নাবেদ মিয়া, দেশের কন্ঠ মো সেলিম উদ্দিন, তফাজ্জুল হোসেন চৌধরী, মিছবাহ চৌধুরী, রকি আহমদে চৌধুরী, মনির হোসেন, আব্দুর রেজাক, সিরাজুল ইসলাম সুমন চৌধুরী, নোমান চৌধুরী, জুবেল মিয়াg

ইউনিয়নের শতাধিক গরীব অসহায় লোকজনের মধ্যে শীতার্তদের শীতবস্ত্র বিতরন শেষে অতিথিদের হাতে সম্মাননা ক্রেষ্ট তুলে দেওয়া হয়। এবং অসহায় গবীর শীতার্ত নারী- পুরুষের হাতে কম্বল তুলে দিয়ে যাতায়াত খরচের জন্য ১শত টাকা করে দেওয়া হয়।