হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে মা-মেয়েকে ধর্ষণের দায় স্বীকার অভিযুক্তদের

সুশীল চন্দ্র দাস, হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে মা ও মেয়েকে ধর্ষণের দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন অভিযুক্ত দুই যুবক।
সোমবার (৫ অক্টোবর) দুপুরে হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সুলতান উদ্দিন প্রধানের আদালতে তারা এ জবানবন্দি দেন।

একইদিন নির্যাতনের শিকার মা ও মেয়ের জবানবন্দি গ্রহণ করেছেন বিচারক। চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চম্পক ধাম জানিয়েছেন, সোমবার বেলা ১২টা থেকে একটা পর্যন্ত ভিকটিম মা-মেয়ের জবানবন্দি গ্রহণ করেন বিচারক। এরপর দুপুর ১টা থেকে পৌনে ৩টা পর্যন্ত গণধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার শাকিল আহমেদ ও হারুন মিয়া তাদের অপরাধ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন।

ওসি জানান, আদালতে মা এবং মেয়েকে গণধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন গ্রেফতার দুই আসামি। সোমবারই তাদের কারাগারে পাঠানো হবে। বিস্তারিত তথ্য পরে জানানো হবে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলমান আছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

জানা গেছে, নির্যাতনের শিকার মা ও মেয়ে চুনারুঘাটের গরমছড়ি এলাকার বাসিন্দা। গত শুক্রবার রাত ৮টার দিকে পূর্ব পরিচিত একজনসহ কয়েকজন যুবক তাদের বাড়িতে এসে ডাকাডাকি করে। একপর্যায়ে তারা ঘরে ঢুকে দুজন মেয়েকে এবং আরেক যুবক মাকে ধর্ষণ করে।

পরদিন নির্যাতনের শিকার মেয়ে বাদী হয়ে চুনারুঘাট থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেন। এরপর উপজেলার জিকধরছড়া এলাকার শফিক মিয়ার ছেলে শাকিল আহমেদ (২২) ও একই এলাকার রেজাক মিয়ার ছেলে হারুন মিয়াকে (২৫) গ্রেফতার করে পুলিশ।