হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে ব্যবসায়ীকে অজ্ঞান করে লাখ টাকা ছিনতাই, আটক ১

সুশীল চন্দ্র দাস, হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রীজ এলাকা থেকে এক ব্যবসায়কে অজ্ঞান করে ২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। পরে গোয়েন্দা পুলিশ বৃহস্পতিবার বিকেলে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ছিনতাইকরাী শামসুল হককে (৬৪) ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার গরুর বাজার থেকে গ্রেফতার করে। সে নেত্রকোণার দূর্গাপুর উপজেলার কাকৈরগারা গ্রামের মৃত কালা চাঁনের ছেলে।

হবিগঞ্জ জেলা গোয়েন্দতা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ বিকেলে এক ব্রিফিং এ জানান, গত ২০ জুলাই বিকেলে আজমিরীগঞ্জ উপজেলার যশকেশরী গ্রামের মৃত ওয়াদ আলীর ছেলে গিয়াস উদ্দিন গরু ক্রয়ের জন্য ঘর থেকে ২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা নিয়ে প্রতারক শামসুল হকের সাথে বাড়ি থেকে বের হন। সিএনজি অটোরিকশায় তারা শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রীজ এলাকায় পৌঁছলে শামসুল হক একটি টাইগার বোতলে চেতনানাশক দ্রব্য মিশিয়ে গিয়াউ উদ্দিনকে খেতে দেয়। এই পানীয় পান করার পর গিয়াস উদ্দিন অজ্ঞান হয়ে পড়লে টাকাগুলো শামছুল হক নিয়ে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন গিয়াস উদ্দিনকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

পরে গিয়াস উদ্দিন বিষয়টি হবিগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশকে জানালে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ময়মনসিংহ থেকে শামছুল হককে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে ১ লক্ষ টাকা ও নেশা জাতীয় দ্রব্য উদ্ধার করা হয়। এ ব্যপারে সে চুনারুঘাট থানায় একটি মামলাও দায়ের করে।

তিনি আরও জানান, শামছুল হক জিজ্ঞাসাবাদে জানায় সে ৭/৮ বছর যাবৎ এই পেশায় জড়িত। এই ঘটনার প্রায় ৫ মাস যাবত গিয়াস উদ্দিনের সাথে গরুর বাজারে নিজের নাম ঠিকানা গোপন করে ছদ্দ নাম দুলাল নামে পরিচয় হয়। তারপর থেকেই সে গিয়াস উদ্দিনকে কিভাবে নেশা জাতীয় দ্রব্য পান করিয়ে তাহার নিকট হইতে টাকা হাতিয়ে নিতে পারে সেই কৌশলে অবলম্বন করে। ঘটনার পূর্বের দিন সে গিয়াস উদ্দিনের বাড়িতে অবস্থান নিয়ে রাত্রীযাপন করে।