হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে পাখি শিকার ও মাটি কাটার দায়ে ৪ জনের কারাদণ্ড ভ্রাম্যমাণ আদালত

সুশীল চন্দ্র দাস, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে উপজেলা প্রশাসনের পৃথক দুটি অভিযানে ৪ জনকে কারাদণ্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এর মধ্যে একজনকে পাখি শিকারের দায়ে আর অপর ৩ জনকে অবৈধ ভাবে হাওরের জমি থেকে মাটি কাটার দায়ে এ দণ্ড দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) সকাল ৫ টায় ও সকাল ৮ টা ১০ মিনিটে পৃথক অভিযানের তাদেরকে প্রত্যেককে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট। প্রথমে সকাল ৫ টায় অবৈধ ভাবে অতিথি পাখি শিকাররত অবস্থায় শিবপাশা ইউনিয়নের পশ্চিমভাগ গ্রামের মৃত মালিক মিয়ার পুত্র রফু মিয়া (৬০) কে আটক করা হয়, এবং ১৭ টি বক উদ্ধার করা হয়।

এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে আটক রফু মিয়াকে বন্য প্রাণী (সংরক্ষণ) আইন, ২০১২ অনুযায়ী ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। এবং উদ্ধারকৃত ১৭ টি বক আকাশে অবমুক্ত করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মতিউর রহমান খান এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান খান। এরপর সকাল ৮ টা ১০ মিনিটে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মতিউর রহমান খান উপজেলার শিবপাশা ইউনিয়নের ঝিলের বন হাওরে ছদ্মবেশে জমির মালিক সেজে অবৈধ ভাবে মাটি কাটার সময় উপজেলার শিবপাশার মৃত মন্তাজ মিয়ার ছেলে কামাল মিয়া (৪০),

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আশুগঞ্জ উপজেলার বাদৈপুর ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের জানু মিয়ার ছেলে জুনায়েদ মিয়া (১৯), পাবনা জেলার কাজির হাট উপজেলার রাজধরদিয়ার মোহাম্মদ আলী ফকিরের ছেলে শামীম ফকির (২৪)কে আটক করেন। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে আটক তিনজনকে বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন,

২০১০ অনুসারে ৬ মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। পৃথক দুটি অভিযানেই পুলিশের একটি দল ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় সহযোগিতা করেন। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মতিউর রহমান খান বলেন, অতিথি পাখি রক্ষা এবং পরিবেশ সংরক্ষণে প্রশাসনের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।