স্বাস্থ্য বিধি মানা হচ্ছেনা ঈদের মার্কেটগুলোতে; দশমিনায় করোনার আশঙ্কা

 সঞ্জয় ব্যানার্জী, দশমিনা-বাউফল প্রতিনিধি: ঈদ-উল-ফিতরকে সামনে রেখে পটুয়াখালীর দশমিনার মার্কেটগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছেনা জনসমাগম হয়ে করছে কেনাকাটা। এ কারণে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ব্যাপক ভাবে ছড়িয়ে পরার আশঙ্কা করা হচ্ছে। রোববার উপজেলার মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে, সামাজিক দূরত্বের বালাই নেই। মানা হচ্ছেনা স্বাস্থ্য বিধি। প্রোটেকশন ছাড়াই কেনাকাটার জন্য দোকানগুলোতে ভিড় জমানো হচ্ছে। মুখে মাক্স ও হাতে গ্লোভর্স নেই। গায়ের সাথে গা লাগিয়ে কেনাকাটা চলছে। এরমধ্যে কেউ হাঁছি কাঁশি দিচ্ছেন।
উপজেলার সকল হাটের চিত্র একই রকম। এসব তদারকির জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন ধরণের উদ্যোগ নেয়া হয়নি। নিয়মের বাইরেই চলছে সব কিছু। দশমিনায় এর মধ্যে চার জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তিনজন সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। একজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েক ব্যক্তি অভিন্ন সুরে বলেন, শুরুতে উপজেলা ও থানা প্রশাসনে তৎপরতা সন্তোষজনক পরিলক্ষিত হলেও বর্তমানে তারা গা ছেড়ে দিয়েছেন। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে উপজেলায় কমিটি রয়েছে।
এ কমিটিতে ইউএনও, ওসিসহ জনপ্রতিনিধিরা রয়েছেন। কিন্তু তাদের কোন কর্মকান্ড চোখে পরছেনা। উপজেলা আ”লীগের সাধারন সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাড. ইকবাল মাহামুদ লিটনের উদ্যোগে কিছু কিছু সামাজি কর্মকান্ড চলমান রয়েছে। সচেতন মহল মনে করছেন, ঈদের মার্কেটে লোক সমাগম নিয়ন্ত্রন না করা গেলে কিংবা স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চললে পরিস্থিতি ভয়াবহ হতে পারে। এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘ ঈদের মার্কেটগুলোতে যে ভাবে জনসমাগম হচ্ছে, তাতে আমি শঙ্কিত। এ অবস্থার উত্তোরণ না হলে ভবিষ্যতে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জেরমত হবে।’ তিনি স্ব্যাবিধি মেনে চলার জন্য সবার প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।