স্বাস্থ্যের কেরানি আবজাল দুদকের দ্বিতীয় দিনের রিমান্ডে

দুর্নীতির আলাদা দুটি মামলায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আলোচিত কেরানি আবজাল হোসেনকে দ্বিতীয় দিনের রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আজ সোমবার বেলা পৌনে বারোটায় রমনা মডেল থানা থেকে তাকে দুদকের প্রধান কার্যালয়ে আনা হয়। এরপর দুদকের উপ-পরিচালক তৌফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টিম তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন।

এর আগে রবিবার তাকে কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে দুদকে আনা হয়। এরপর প্রথম দিনের রিমান্ড শেষে তাকে রমনা মডেল থানার হেফাজতে রাখা হয়।

আবজালকে দুই মামলায় দশ দিন করে মোট ২০ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করলে আদালত ১৪ দিন রিমান্ড মঞ্জুর করে। দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর গত ২৬শে আগস্ট আবজাল আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। পরে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও অর্থ পাচারের অভিযোগে আবজাল ও তার স্ত্রী রুবিনা খানমের বিরুদ্ধে গত বছরের ২৭শে জুন পৃথক দুটি মামলা করে দুদক। একটি মামলায় অবৈধভাবে অর্জিত ২৬৩ কোটি ৭৬ লাখ  টাকা পাচারের অভিযোগ আনা হয়।

আরেকটি মামলায় আবজালের বিরুদ্ধে ২০ কোটি ৭৪ লাখ ৩২ হাজার ৩২ টাকা অর্থপাচারের অভিযোগ আনা হয়। আর ৪ কোটি ৭৯ লাখ ৩৪ হাজার ৪৪৯ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়।

দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) আসা অভিযোগে বলা হয়েছে, আবজালের দেশে বিদেশে প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকার সম্পদ রয়েছে।