স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাগেরহাটের লাউপালায় অনুষ্ঠিত হলো ঐতিহ্যবাহি রথযাত্রা

মাহফুজুর রহমান বাপ্পী, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি: করোনাভাইরাস এর কারনে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজা অর্চনা ও সিমিত পরিসরে অনুষ্ঠিত হলো প্রায় সাড়ে তিনশত বছরের পুরাতন দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বাগেরহাটে লাউপালার রথযাত্রা।

তবে করোনাভাইরাসের কারনে এবারের রথ যাত্রায় অনুষ্ঠানিকতার জন্য নাম মাত্র লোক স্বাস্থ্যবিধি মেনে রথযাত্রায় অংশ গ্রহন করেন। এসময় শুধু মাত্র পূজা অর্চনায় সিমাবদ্ধ থাকায় আয়োজন করা হয়নি ঐতিহ্যবাহি মাসব্যাপি মেলা ও বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার। একই ভাবে জেলার কচুয়া উপজেলার শিবপুরের শিববাড়ী মন্দির, শহরের শ্রীশ্রী গোবিন্দ মন্দির, সদর উপজেলা খানপুর ও মোংলাসহ জেলার বিভিন্ন এলাকায় সল্পো পরিষরে রথযাত্রার আনুষ্ঠানিকতা ও পূর্জা-অর্চনার আয়োজন করা হয়।

বাগেরহাট জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অমিত রায় জানান, কেন্দ্রীয় পূজা উদযাপন পরিষদের সিদ্ধান্তের কারণে এবার সারা দেশে আনুষ্ঠানিক ভাবে রথযাত্রা ও মেলা হচ্ছে না। তবে আমরা করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে জিউর নাটমন্দিরে পুরোহিতসহ শতাধিক লোক রথযাত্রা শেষে পূজা-অর্চনা করে ভগবানের কাছে করোনা থেকে মুক্তির জন্য প্রার্থনা করেছি। এসময় মন্দির কমিটির সভাপতি চিত্ত রঞ্জন মিত্র, কমল দাস, সুভাষ চৌধুরী, মোহন লাল হালদার, প্রদিব বসু সন্তু, গোবিন্দ হালদারসহ হিন্দু সম্প্রদায়ের বিভিন্ন স্থারের গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, বাগেরহাট সদর উপজেলার বারুইপাড়া ইউনিয়নের লাউপালায় গোপাল জিউর মন্দিরে অনুষ্ঠিত হত দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শ্রীশ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা।

লাউপালায় গোপাল জিউর মন্দিরে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শ্রীশ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা ও উল্টা টান অনুষ্ঠানে প্রতিবছর হাজার-হাজার সনাতন ধর্মাবলম্বী পূর্ণলাভের আশায় তিনশ বছরের পুরাতন ঐতিহ্যবাহী এই রথ টানে অংশ নিতো। প্রতিবছর শ্রীশ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উপলক্ষে পূজা অর্চনা, গীতা পাঠ, ধর্মীয় আলোচনা, রামায়ন, কীর্তন গানসহ নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হত।

এছাড়াও রথযাত্রা উপলক্ষে লাউপালায় বসতো মাসব্যাপী মেলা। মেলায় পুতুল নাচ ও সার্কাসসহ দেশিয় ঐতিহ্যবাহী চারুকারুসহ মৃৎ শিল্পের বাহারি পসারা নিয়ে বসতেন দোকানিরা