স্বামী পালালেও ২০ কেজি গাঁজা নিয়ে স্ত্রী ধরা

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় মাসদাইর মাহাবুবের বাসায় অভিযান চালিয়ে ২০ কেজি গাঁজা ও নগদ ৪৮ হাজার টাকাসহ সোনিয়াকে (২২) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় তার হেফাজত থেকে মাদক ব্যবসার কাজে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার উদ্ধার করে পুলিশ।

শুক্রবার (৫ ফেব্রুয়ারি) ফতুল্লার মাসদাইর শেরে বাংলা লিংক রোডের ছায়া বীথি এলাকায় এ অভিযানকালে সোনিয়ার স্বামী মাহাবুব পালিয়ে যায়।

গ্রেপ্তারকৃত সোনিয়া নাটোর জেলার সিংড়া থানার চাদপুর গ্রামের মাহাবুবের স্ত্রী। তিনি ফতুল্লার মাসদাইর শেরেবাংলা লিংক রোডের আল আমীন মসজিদের উল্টো-পাশে একটি বাড়িতে ভাড়া থাকে।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার ভোরে ফতুল্লা থানার ওসি আসলাম হোসেনের নেতৃত্বে মাসদাইর মাহাবুবের বাসায় অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাহাবুব পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও তার স্ত্রী সোনিয়াকে আটক করে পুলিশ। পরে তার স্বীকারোক্তি মতে শোয়ার কক্ষ থেকে কয়েকটি প্যাকেটে মোড়ানো সাড়ে ১৬ কেজি গাঁজা ও তার দেখানো মতে প্রাইভেটকারের ভেতর থেকে প্যাকেটে মোড়ানো সাড়ে ৩ কেজি সব মিলিয়ে ২০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে মাদক বিক্রির নগদ ৪৮ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাসদাইরে অভিযান চালিয়ে ২০ কেজি গাঁজা, একটি প্রাইভেটকার ও নগদ ৪৮ হাজার টাকাসহ সোনিয়া নামক এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় মাদক আইনে সোনিয়া ও তার স্বামী মাহাবুবের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা করা হয়েছে।