স্ত্রীর মুখ অ্যাসিডে ঝলসে দিয়েছে স্বামী

জশাহীর গোদাগাড়ী থানার রানীনগর এলাকায় এক গৃহবধূর মুখ অ্যাসিডে ঝলসে দিয়েছে তার স্বামী।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক তিনটার দিকে পারিবারিক কলহের জেরে স্বামী মুরাদ আলী (২৮) তার স্ত্রী মাহবুবা বেগমের (১৮) মুখে অ্যাসিড দিয়ে ঝলসে দেয়। মুরাদের বাড়ি গোদাগাড়ী উপজেলার দেউপাড়া ইউনিয়নের কুমুরপুর গ্রামে। ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন তিনি।গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল ইসলাম জানান, ১৮ বছর বয়সী মাহবুবা বেগমের সঙ্গে বছর দেড়েক আগে ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে পরিবারের অমতে দুÕজনে পালিয়ে বিয়ে করেন ট্রাক হেলপার মুরাদ আলী। মুরাদ আলীর পরিবার বিয়ে মেনে না নেয়ায় দুই পরিবারের দ্বন্দ্বের জেরে ও বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন কারণে পারিবারিক কলহ বিরাজ করতো এবং মাহাবুবাকে মুরাদ আলী শারীরিকভাবে নির্যাতন করতো। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক তিনটার দিকে কলহের একপর্যায়ে মুরাদ স্ত্রীর মুখ অ্যাসিড দিয়ে ঝলসে দেয়। এ অবস্থায় জরুরিভাবে তাকে গোদাগাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসকরা তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করতে বলেন।আজ শুক্রবার সকালে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। কিশোরী মাহবুবা ২০২১ সালে রানী নগর মাদরাসা থেকে এসএসসি পরীক্ষার্থী। ঘটনার পর থেকে স্বামী মুরাদসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা পলাতক রয়েছে।ওসি আরও জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। থানায় এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। হয়তো তার চিকিৎসা শেষে তারা মামলা দায়ের করবে। তবে পুলিশ অপরাধী মুরাদকে গ্রেপ্তারে চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে বলে জানান এই কর্মকর্তা।