স্কুল ছাত্রীকে পাশবিক নির্যাতনের ঘটনায় দুইজন গ্রেফতা

মোঃ আহছান উল্যাহ, ফেনী জেলাঃ ফেনীর দাগনভূইয়ায় স্কুল ছাত্রীকে পাশবিক নির্যাতনের ঘটনায় ডাঃ করিম মহাজন (৪৮)সহ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ |

করিম দাগনভূইয়া উপজেলার মাতুভূইয়া ইউনিয়নের ৮ নং ওয়াডের মােমারিজপুর গ্রামের চানমিয়া মহাজন বাড়ীর ইস্রাফিলের ছেলে | করিমের দাগনভুইয়া বাজারের ফাজিলের ঘাট রোডে বাংলাদেশ হারবাল নামে একটি ঔষধের দোকান রয়েছে | প্রতারক হিসাবে পরিচিত করিম মহাজন।অপরজনের নাম বেলাল হোসেন(৪৬)।সে ইয়াকুবপুর ইউনিয়নের ২ নং ওয়াডের শরিফপুর গ্রামের আবুল হাসেমের ছেলে।

মামলার বিবরণ জানা যায়, দাগনভূইয়া নামার বাজারের নুর জাহান মঞ্জিলের ভাড়াটিয়া কিশোরীর সাথে উক্ত ব্যক্তিরা নানা প্রলোভনে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। বিগত দুই বছর যাবত কিশোরীকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে ধর্ষণ করে আসছে।কিশোরীর অস্বাভাবিক আচরনের কারনে পরিবারের সন্দেহ হলে, কিশোরীকে জিজ্ঞাসা করলে সে ঘটনাটি খুলে বলে। বুধবার রাতে কিশোরীর মা থানায় বাদী হয়ে মামলা করলে পুলিশ বেলাল ও করিম মহাজনকে গ্রেফতার করে।

দাগনভূইয়া থানার ওসি ইমতিয়াজ আহমেদ জানান, অভিযােগ পেয়ে আসামিদেরকে আটক করে নারী ও শিশু নিয্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। কিশোরীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ফেনী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।