সৌদি আরবে প্রথম করোনভাইরাস রোগী সনাক্ত

শেখ লিয়াকত আহম্মেদ, সৌদি আরব: সোমবার সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় এক সৌদি নাগরিকের প্রথম করোনভাইরাস (কোভিড-১৯)  শনাক্তের করার ঘোষণা দিয়েছে। মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বিভিন্ন পরীক্ষা করে  কোভিড -১৯ সংক্রমণের প্রথম ঘটনাটি একজন নাগরিক বলে নিশ্চিত করেছে।

সৌদি প্রেস এজেন্সি জানিয়েছে ঐ সৌদি নাগরিক ইরান হয়ে বাহরাইন থেকে সৌদি আরবে স্থল বন্দর দিয়ে প্রবেশের সময় তাকে মেডিকেল পরীক্ষা করে করোনভাইরাসে আক্রান্ত বলে ঘোষনা দেয় সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়। মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে আরও জানিয়েছে ঐ নাগরিক ইরান সফর গোপন করেছিল।

মন্ত্রণালয়ের বিবৃতি অনুসারে, সৌদি রোগ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রের পরীক্ষাগার পরীক্ষার জন্য সংক্রামিত ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ করা সমস্ত ব্যক্তির কাছ থেকে নমুনা নেওয়া হয়েছিল এবং পরীক্ষা শেষ হলে ফলাফল ঘোষণা করা হবে। এই সৌদি নাগরিককে হাসপাতালে পৃথক করা হয়েছে এবং বর্তমানে তার চিকিৎসা চলছে,

 এর আগের দিন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী তৌফিক আল-রাবিয়া বলেছিলেন যে ২৯০টিরও বেশি সন্দেহভাজন মামলার পরীক্ষার পরে কিংডম করোনভাইরাস সংক্রান্ত কোনও নিশ্চিত মামলা রেজিস্টার্ড করেনি।

সৌদি আরবের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ তৌফিক আল-রাবিয়াহ বলেছেন যে, চীনে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্তের পর থেকে সৌদি কর্তৃক গৃহীত সতর্কতামূলক পদক্ষেপের প্রশংসা করে আল-রাবিয়া বলেছিলেন: “আমরা সৌদি আরবে সকল আগতকে নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছি, বিশেষত এই রোগে আক্রান্ত দেশ থেকে।  সেগুলি নিরাপদ রয়েছে তা নিশ্চিত করার জন্য সমস্ত সন্দেহভাজনদের পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পরীক্ষা করা হচ্ছে। সৌদি আরবে ২৯৮ টিরও বেশি সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হয়েছে, এগুলি সবই নিরাপদে পাওয়া গেছে।

মন্ত্রণালয় আরও  জানিয়েছে এই ভাইরাস সম্পর্কিত যে কোনও প্রশ্নের জন্য ৯৩৯ নাম্বার কল করে কেন্দ্রের সাথে যোগাযোগ করার জন্য সকল ব্যক্তিকে আহ্বান জানিয়েছে, এবং কোন গুজব বিশ্বাস না করে স্বাস্থ্য মন্ত্রানলয়ের অফিসিয়াল তথ্য মেনে চলার আহব্বান জানান।

চীনের উহান শহর থেকে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি হয়।  চীনের ৩০টি প্রদেশ ছাড়াও বিশ্বের অন্তত ৫৯টি দেশে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে।

চিনের পরেই ইরান, করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে কমপক্ষে ৬৬ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন এবং ১৫০০ জন সংক্রমণের শিকার, এমন তথ্যই পাওয়া গিয়েছে।

সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী বিশ্বে এ পর্যন্ত ৮৫ হাজারের বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে ৩৯ হাজার লোক সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এ ছাড়া এ পর্যন্ত অন্তত ৩০০০ মানুষ এ রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন।