সৌদিতে করোনাভাইরাস সংক্রমনে নিহতদের স্মরণে দূতাবাসের শোক প্রকাশ

শেখ লিয়াকত আহম্মেদ, রিয়াদ প্রতিনিধি:  সৌদি আরবে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমনে নিহত সকল বাংলাদেশি প্রবাসী ও ভাইরাসের সংক্রমনে সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও সংসদ সদস্য মোহাম্মদ নাসিম ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট শেখ মোঃ আব্দুল্লাহর মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ। ১৮জুন বৃহস্পতিবার সৌদি আরবের রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস, জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট ও হজ মিশনের কর্মকর্তাদের এক অনলাইন সভায় এ শোক প্রকাশ করা হয়।

ভাইরাসের সংক্রমণে দেশে ও বিদেশে নিহত সকল বাংলাদেশিদের জন্য ও শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রদূত। এ সময় নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। দেশে করোনাভাইরাস বিস্তার প্রতিরোধে সার্বিক সফলতা কামনা করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য কামনা করে দেশের  সুখ ও সমৃদ্ধির জন্য দোয়া করা হয়। রাষ্ট্রদূত বলেন, সৌদি আরবে করোনাভাইরাস ও এর উপসর্গ নিয়ে এ পর্যন্ত ৩৭৫ জন বাংলাদেশি মারা গিয়েছেন।

এর মধ্যে ৪ জন বাংলাদেশি চিকিৎসকও রয়েছেন, যারা সৌদি আরবে কর্মরত অবস্থায় করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন। রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, আমরা প্রবাসীদের সকল সেবা নিশ্চিত করার জন্য কাজ করে যাচ্ছি। এ পর্যন্ত প্রায় ৩০ (ত্রিশ) হাজার প্রবাসীকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছি। সৌদি আরবের সকল প্রান্তে অবস্থিত প্রবাসিদের জরুরি চিকিৎসা পরামর্শ প্রদানের জন্য প্রায় ৬০ জন চিকিৎসক টেলিফোনে পরামর্শ প্রদান করছেন। আক্রান্তদের দূতাবাসের পক্ষ থেকে হাসাপাতালে ভর্তি ও প্রয়োজনীয় ফলোআপ করা হচ্ছে।

মৃত প্রবাসীদের লাশ দাফনে জরুরী ভিত্তিতে সকল আইনগত সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। সৌদি আরবে আটকে পড়া প্রবাসীদের দেশে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য বাংলাদেশ বিমানের বিশেষ ফ্লাইটের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ বলেন প্রবাসীদের কথা ভেবে আমরা এ সময়েও দূতাবাস থেকে পাসপোর্ট সেবা ও অন্যান্য সেবা প্রদান অব্যাহত রেখেছি। এছাড়া প্রবাসী সেবা কেন্দ্রের মাধ্যমেও দূর দুরান্তে অবস্থিত প্রবাসীদের বিভিন্ন সেবা প্রদান করা হচ্ছে। তিনি সৌদিতে বসবাসরত বাংলাদেশি অভিবাসীদের জন্য বিনামূল্যে করোনাভাইরাসের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করার জন্য সৌদি বাদশাহকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।