সৈয়দপুরে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ ভূয়া নিয়োগপত্র দিয়ে তিন কোটি টাকা আত্মসাৎ

সাদিকুল ইসলাম সাদিক, নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি: বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের ভূয়া নিয়োগপত্র দিয়ে একটি প্রতারক চক্র প্রায় তিন কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে নীলফামারীর সৈয়দপুরে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়েছে।

ওই প্রতারক চক্রের মুলহোতা আব্দুল কাদের ওরফে আসিফ নামের এক ব্যক্তি। এসময় প্রতারণার শিকার ২০ জন যুবক উপস্থিত ছিলেন। গতকাল রবিবার দুপুরে শহরের সৈয়দপুর প্লাজায় একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে ওই অভিযোগ করা হয়। প্রতারিত যুবকদের পক্ষে লিখিত বক্তব্যে শোনান রকিবুল ইসলাম।

তার বাড়ী দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দর থানা হাশিমপুর পাইকপাড়া গ্রামে। তিনি বলেন, আমাকেসহ ৩০ যুবকের কাছে প্রায় তিন কোটি টাকা নিয়ে ওই প্রতারক চক্রটি গা ঢাকা দিয়েছে। প্রতিজন যুবকের কাছে ১০ থেকে ১৫ লাখ টাকা নিয়েছে। খোদ আমার কাছ থেকে খাদ্য অধিদপ্তরের সহকারী উপ-পরিদর্শক পদে ভূয়া নিয়োগ দিয়ে ১৫ লাখ টাকা নেয়।

একইভাবে অফিস সহকারী ও অফিস সহায়ক পদে ভূয়া নিয়োগপত্র দিয়ে একই ঘটনা ঘটিয়েছে। পরে আমাদের ঢাকায় নিয়ে গিয়ে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের অধিন দপ্তরের নামে ভূয়া নিয়োগ দিয়ে টাকা হাতিয়ে নেন। আমরা অফিসে যোগদান করতে গেলে ঘটনা ফাঁস হয়ে যায়। এরপর ওই চক্রটি পুরোপুরি ভাগে গা ঢাকা দিয়েছে।

এব্যাপারে আব্দুল কাদেরর সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্ঠা করলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।