সৈয়দপুরে রেল কোয়াটারের সামনের জমি দখল হচ্ছে

0
1

সাদিকুল ইসলাম সাদিক, নীলফামারী: সৈয়দপুর রেলওয়ের ভূমি বেদখল হওয়ার খবর পুরোনো।

এবার দপ্তরটির সাব বাংলো ও কোয়াটারের সম্মুখ জমি প্রকাশ্যে বেদখল হচ্ছে।

এ সকল কোয়াটারের দেখভালের দায়িত্বে থাকা কতৃপক্ষকে ম্যানেজ করে বহিরাগতসহ রেলওয়ে কর্মচারিরাও এ দখল বানিজ্যে মেতে উঠেছে।

এতে সরকারী এ দ্বীত্বল ভবনগুলো অবৈধ দখলের আড়ালে অস্তিত্ব সংকটে বসেছে। সরেজমিনে দেখা যায়,

টি-২১ নং সাব বাংলোর চতুরদিকে বেদখল হয়েছে। বাংলোটির সিমানার ভিতর স্কুল, বাসা-বাড়িসহ বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়েছেন বহিরাগতরা।

তবে বেদখলে বিষয়ে স্থানিয়রা জানান, এ বাংলোতে বসবাসকারী শ্রমিক ও তৎকালীন শ্রমিক নেতা এবং রেলওয়ের বাসাবাড়ি বরাদ্দ প্রদানকারী কর্মকর্তা ও পুর্ত বিভাগকে ম্যানেজ করে বেদখল হয়েছে।

একই ভাবে টি-৩৭, এল আর ৩০, এল ২৪, এল ১২৪, এল ১৮৬, এল ২৮সহ প্রায় সকল সাব বাংলোর সামনের অংশ বেদখল হয়েছে।

তবে এ সকল সাব বাংলোর সামনে গড়া অবকাঠামো নির্মাণ করেছেন সরকারী ওই প্রতিষ্ঠানটির অবসরপ্রাপ্ত ও কর্মরত কর্মচারীগণ।

কোয়াটার ও সাব বাংলো বরাদ্দের দায়িত্বে থাকা ব্যারাক মাষ্টার মো: সাইফুল ইসলামের সাথে। তিনি বলেন,

আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না। তবে এ সকল বাংলো, সাব বালো ও কোয়াটার রক্ষনাবেক্ষনের দায়িত্বরত

সৈয়দপুর রেলওয়ের পুর্ত বিভাগের উর্ধ্বত্বন উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো: শরিফুল ইসলাম রেল কর্মচারিদের অবৈধ দখলের সত্যতা স্বিকার করেন।

তিনি বলেন, আমি তিন মাস আগে এখানে যোগদান করেছি। তাই এর পুর্বের বিষয় অবগত নই। তবে রেলওয়ে কারখানার কয়েকজন কর্মচারির বিরুদ্ধে এমন পেয়েছি।

তাদের টিকিট নাম্বার ও সঠিক বায়োডাটা সংগ্রহ করে উর্ধ্বত্বনদের কাছে লিখিত অভিযোগ প্রেরনের প্রস্ততি চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here