সৈয়দপুরে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযান

সাদিকুল ইসলাম সাদিক, নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারীর সৈয়দপুরে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের এক অভিযানে একটি ভেজাল সার কারখানা এবং দুইটি হোটেল মালিকের ৬০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। গতকাল রবিবার (২৫ অক্টোবর) শহরের বিসিক শিল্প নগরীর সামনে নিয়ামতপুর এলাকায় এবং শহরের উপকন্ঠে চৌমুহনীবাজারে ওই অভিযান পরিচালনা করা হয়। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক (এডি) এবং নীলফামারী জেলা অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারি পরিচালক (এডি) মো. রোবহান উদ্দিনের নেতৃত্বে সৈয়দপুর বিসিক শিল্প নগরীর সামনে নিয়ামতপুর এলাকায় এক অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ সময় সেখানে তিস্তা ক্রপ কেয়ার নামের একটি ভেজাল সার কারখানার সন্ধান পাওয়া যায়। ওই ভেজাল সার কারখানায় পোড়া মাটি দিয়ে জিমসাম সার তৈরি করে তিস্তা ক্রয় কেয়ার নামের প্যাকেটজাত করা হচ্ছিল। এ সব সারের প্যাকেটে জিপসামের সারের কোন রকম উপাদানের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। এ সময় ভেজাল উপকরণ ব্যবহার করে জিপসাম সার তৈরি করে প্যাকেটজাত করে বাজারজাত করার দায়ে কারখানা মালিকের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

কারখানার মালিক জনৈক আব্দুর রাজ্জাক বলে অভিযান পরিচালনা সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। এছাড়াও সৈয়দপুর শহরের উপকন্ঠে চৌমুহনী বাজারের অপরিস্কার, নোংরা ও অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার তৈরি, সংরক্ষণ, পরিবেশনের অভিযোগে তৃপ্তি ও মুন্না হোটেলে মালিক যথাক্রমে মো. ফরিদুল ও ফরহাদের পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। অভিযানে সৈয়দপুর উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক মো. অহিদুল হক ও পৌর স্যানিটারী ইন্সপেক্টর মো. আলতাফ হোসেন সরকার এবং র‌্যাব- ১৩, নীলফামারী সিপিসি- ২ ক্যাম্পের সদস্যরা সহযোগিতা করেন।