সেন্টমার্টিনে ট্রলার ডুবি, ১৫ জনের মৃত্যু; হতাহত বাড়ার আশংকা

কক্সবাজারের টেকনাফে সেন্টমার্টিনের কাছে বঙ্গোপসাগরে ট্রলার ডুবিতে এখন পর্যন্ত ১৫ জনের মরদেহ উদ্ধারের কথা নিশ্চিত করেছে কোস্টগার্ড।  জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে অন্তত ৬৫ জনকে। সমুদ্রপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে সোমবার গভীর রাতে সেন্টমার্টিনের ছেঁড়াদ্বীপের দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে ট্রলারডুবির এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, রোহিঙ্গাদের নিয়ে সাগর পথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাবার সময় বঙ্গোপসাগরে সেন্টমার্টিন দ্বীপের কাছে ট্রলারটি ডুবে যায়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৫ জনের মরদেহ উদ্ধার করার করা হয়েছে। জীবিত উদ্ধার করা হয়েছেন ৬৫ জন। এখনও অনেকে নিখোঁজ রয়েছেন। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সেন্টমার্টিন কোস্টগার্ডের স্টেশন কমান্ডার নাইমুল হক জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পাথরের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ট্রলারটি ডুবে যায়। ট্রলারটিতে ১২০ জন যাত্রী ছিলেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

উদ্ধার রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, সোমবার রাতে সমুদ্রপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন তারা। সেন্টমার্টিনের ছেঁড়াদ্বীপের দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে ইঞ্জিন বিকল হয়ে ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটে। এতে অনেকেই ডুবে যান। কেউ কেউ সাঁতরে পার হন।