সেই অ্যাম্বুলেন্সের ৬ যাত্রীর ৫ জনই করোনায় আক্রান্ত

সঞ্জয় ব্যানার্জী, দশমিনা-বাউফল প্রতিনিধি: লকডাউন উপেক্ষা করে রোগী সেজে অ্যাম্বুলেন্সে করা আসা ছয়জনের মধ্যে পাঁচজনই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। গত সোমবার নারায়ণগঞ্জ থেকে পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কালাইয়া ইউনিয়নে আসেন তারা।

আজ শুক্রবার বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার সাহা এ তথ্য নিশ্চিত করেন। আক্রান্তদের মধ্যে একজন পুরুষ, বাকি চারজনই নারী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার নারায়ণগঞ্জ থেকে অ্যাম্বুলেন্সে রোগী সেজে বাউফলের কালাইয়া ইউনিয়নে আসেন তারা। একপর্যায়ে ওই যাত্রীরা স্থানীয়দের বাধার মুখে পড়েন। পরে ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান এসএম ফয়সাল আহম্মেদ মনির হোসেন মোল্লা বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে জানান। পরে পুলিশ ওই অ্যাম্বুলেন্সটি জব্দ করে এবং ওই ছয় যাত্রীকে আটক করে উপজেলার ইদ্রিস মোল্লা ডিগ্রি কলেজের শ্রেণিকক্ষে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাকির হোসেন জানান, আক্রান্তদের আইসোলেশনে রেখে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়ার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে বলা হয়েছে। তিনি উপজেলাবাসীকে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার সাহা বলেন, ‘যারা আক্রান্ত হয়েছেন, তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা সুস্থ আছেন। তাদের প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে রেখে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা চলছে।