সিলেট বিভাগে করোনায় মৃত্যু সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২৫ জনে

এনাম রহমান, সিলেট প্রতিনিধিঃ সিলেট বিভাগে প্রতিদিন বেড়েই চলেছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। থেমে নেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর মৃত্যুর মিছিলও। গেল ৪ এপ্রিল সিলেট বিভাগের প্রথম করোনা রোগী হিসেবে মৌলভীবাজারের রাজনগরে এক ব্যবসায়ী মারা যান। যদিও তার করোনা শনাক্তের রিপোর্ট এসেছিল ৫ এপ্রিল।

এরপর থেকে প্রতিদিন বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। সবশেষ বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) মধ্যেরাত পর্যন্ত সিলেট বিভাগে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১২৫ জন। এরমধ্যে সুদু সিলেট জেলায় ৯২ জন, সুনামগঞ্জে ১৩ জন, হবিগঞ্জে ১০ জন, এবং মৌলভীবাজারে ১০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। সিলেট বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য)’র কার্যালয়ের কোভিড-১৯ কোয়ারেন্টিন ও আইসোলেশনের দৈনিক প্রতিবেদন এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এদিকে সিলেটে প্রতিদিন বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সংখ্যা। গত ৫ এপ্রিল সিলেটে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর প্রতিদিনই বাড়ছে রোগী। বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) দুপুর পর্যন্ত সিলেট বিভাগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭১৪১ জন। এরমধ্যে সিলেট জেলায় ৩ হাজার ৭৮৭ জন, সুনামগঞ্জে ১ হাজার ৩৬৫, হবিগঞ্জে ১ হাজার ৯১ এবং মৌলভীবাজারে ৮৯৮ জন রোগী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ার কারণ হিসেবে বিশেষজ্ঞদের মতামত। মান হচ্ছে না সামাজিক দুরত্ব, অবাধে চলাচল করছেন সাধারণ মানুষ মাস্ক ছাড়া। গন গন ধোয়া হচ্ছে না সাবান পানি বা হ্যান্ডস্যানিটাইজার দিয়ে হাত। মূল কথা সাস্থবীদি না মানাকের দায়ি করছেন বিশেষজ্ঞরা।

খুশির খবর হচ্ছে সিলেট বিভাগে প্রতিদিনই করোনা রোগীর সুস্থতার হারও বেড়েছে। গত ২৭ এপ্রিল বিভাগে প্রথম সুনামগঞ্জে দুই রোগী করোনাভাইরাস জয় করে বাড়ি ফেরেন। এরপর প্রতিদিন বিভাগের বিভিন্ন জেলার রোগীরা করোনা জয় করে বাড়ি ফিরছেন।
সবশেষ বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) দুপুর পর্যন্ত সিলেট বিভাগের ২ হাজার ৯৫৩ জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এরমধ্যে সিলেট জেলায় ৯৫২, সুনামগঞ্জে ১ হাজার ২৪, হবিগঞ্জে ৫১৫, মৌলভীবাজারে ৪৬২ জন রোগী করোনা জয় করে বাড়ি ফিরেছেন।