সিলেট নগরীতে অস্ত্রসহ দুই কুখ্যাত ছিনতাইকারি আটক

এনাম রহমান, সিলেট প্রতিনিধি: ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ও দেশীয় অস্ত্রসহ দুই চিহ্নিত ছিনতাই কারীকে গ্রেপ্তার করেছে সিলেট কোতোয়ালী মডেল থানার পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- সিলেটের দক্ষিণ সুরমার মৃত সোয়াব মিয়ার ছেলে মির্জা জনি আহমদ (৩৫) ও নগরীর টিলাগড়ের মৃত শাহাবুদ্দিনের ছেলে আসাদুজ্জামান যুবায়ের (৩৬)।

আজ মঙ্গলবার (৯ জুন) ভোরে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশ সূত্রে জানাযায় গত ১০ মে রাত সাড়ে ৯টার দিকে কোতোয়ালী মডেল থানাধীন ধোপাদিঘীরপাড়স্থ হাফিজ কমপ্লেক্সের সামনে রাস্তার দক্ষিণ পাশে ধারালো চাকু দ্বারা ভয়ভীতি প্রদর্শন ও লোহার রড দ্বারা আঘাত করতে নগদ ২ লাখ ১৫ হাজার টাকা ও একটি এন্ড্রয়েড মোবাইল সেট ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।

ওই ঘটনার প্রেক্ষিতে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) আজবাহার আলী শেখের দিকনির্দেশনায় কোতোয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সেলিম মিঞা ও পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সৌমেন মৈত্র’র নেতৃত্বে থানার এসআই বিমল চন্দ দে, এসআই দেবাশীষ দেব, এসআই মো. ইবাদুল্লাহ ও এএসআই সাজ্জাদুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্সসহ গোপন সূত্রের ভিত্তিতে আজ মঙ্গলবার ভোর রাতে সিলেটের দক্ষিণ সুরমা থানাধীন ভার্থখলা এলাকা ও শাহপরাণ (রঃ) থানাধীন টিলাগড় রাজপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে দুই চিহ্নিত ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করেন।

এ সময় ছিনতাইকারীদ্বয়ের হেফাজত থেকে ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত একটি লাল, কালো ও সাদা রঙের হিরো হোন্ডা মোটরসাইকেল (রেজি: নং- সিলেট-ল-১১-১৮৫৭), ধারালো চাকু ও কয়েকটি মোবাইল সেট জব্দ করা হয়।

এর আগে ছিনতাইয়ের ঘটনার বিষয়ে মো. আবু সুফিয়ান নামের এক ব্যক্তি বাদী হয়ে থানায় এজাহার দায়ের করলে কোতোয়ালী মডেল থানায় আইন-শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) আইনে মামলা রুজু করা হয়েছিল। ওই মামলায় গ্রেপ্তারকৃতদের বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।