সিলেটে দ্বিতীয় দফায় সুরমা নদীর পানি বিভিন্ন পয়েন্ট বিপদসীমা অতিক্রম করেছে

এনাম রহমান, সিলেট জেলা প্রতিনিধি: সিলেটে সুরমা নদীর পানি দ্বিতীয়দফা বিভিন্ন পয়েন্টে বিপদসীমা অতিক্রম করেছে। (আজ ২২/০৭/২০২০) বুধবার সকাল ১০ টায় সুরমা নদীর পানি এসকল পয়েন্টে বিপদসীমার চার সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়।

পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)-এর বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়। বুলেটিনের তথ্য অনুযায়ী, আজ সকাল ১০ টায় সিলেটের কানাইঘাটে ও সিলেটের সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ৭৪ সেন্টিমিটার এবং ফেঞ্চুগঞ্জে কুশিয়ারা নদীর পানি বিপদসীমার ৫৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। আমলসীদ ও শেওলা পয়েন্টেও কুশিয়ারা নদীর পানিও বিপদসীমার প্রায় কাছাকাছি চলে এসেছে। এদিকে সিলেট নগরীতেও সোমবার রাত থেকে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। বুধবার সকালেও বৃষ্টিপাত হয়েছে। সুরমা নদীর ও বৃষ্টির পানি নগরীর অনেক এলাকা ঢুকে পড়ে তার মধ্যে উল্লেখ উপশহর,

যতরপুর, তেরোরতন, শামীমাবাদ, ঘাসিটুলা, কানিশাইল, তালতলা, কদমতলির একাংশ, হবিন্দীসহ এসব এলাকার বেশ কিছু সড়ক তলিয়ে গেছে, নিচু এলাকার বেশ কিছু বাসা বাড়িতে ও ঢুকেছে পানি। সিলেটের নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় ফলে সিলেটের ৫ উপজেলায় দ্বিতীয়দফা বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। এসব উপজেলা দিয়ে প্রবাহিত নদী দিয়ে বন্যার পানি উপচে লোকালয়ে প্রবেশ করেছে। কয়েকটি উপজেলা সদরেও পানি প্রবেশ করেছে। উপজেলা ৫টি হচ্ছে-গোয়াইনঘাট, কোম্পানীগঞ্জ, জৈন্তাপুর, কানাইঘাট ও ফেঞ্চুগঞ্জ। এর মধ্যে কানাইঘাট ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা সদরে পানি প্রবেশ করেছে একটু বেশি।