সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ১নং মোল্লার গাঁও ইউনিয়নের মেম্বারের মইনের ব্যাপক দুর্নীতি।

এনাম রহমান, সিলেট প্রতিনিধি:  সিলেটের দক্ষিণ সুরমার উপজেলার ১নং মোল্লারগাঁও ইউনিয়নে ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বার,বেটুয়ার মুখ গ্রামের মৃত আকবর আলী ছেলে মেম্বার মইন উদ্দিন এর ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন ৯নং ওয়ার্ডবাসী। মইন মেম্বার ইউনিয়নের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের টাকা আত্মসাত সহ বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

চ্যানেল এস এর অনুসন্ধানে দেখা যায় মোল্লারগাঁও ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের বেটুয়ারমুখ গ্রামের পশ্চিমে লক্ষীপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামন বেটুয়ারমুখ রাস্তার নতুন ব্রীজ হতে লোকমান এর বাড়ি পর্যন্ত প্রায় ২৪৬ ফুট কাঁচা রাস্তা এলজিএসপি-৩/ ২০১৮-১৯ প্রকল্পে প্রায় ২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ঢালাই কাজের মাধ্যমে রাস্তার উন্নয়ন কাজের দায়িত্ব পান মেম্বার নিজেই। রাস্তাটি উচ্চতা ৪ ইঞ্চি ও প্রস্থ ৭ ফুট এবং ঢালাই কাজে ৪/১ মাল দিয়ে ২০ ফুট পর পর ককসিট দিয়ে ঢালাই কাজ করার জন্য অনুমোদিত হয়।

কিন্তু মইন মেম্বার রাস্তাটির খাড়া ৪ ইঞ্চি ঢালাই না করে কোথাও ২ থেকে ৩ ইঞ্চি, প্রস্থ ৭ ফুট এর স্থলে ৫ ফুট এবং ২৪৬ ফুট রাস্তার ঢালাই করার কথা থাকলেও মেম্বার মইন করেছে ২৩০ ফুট। এতে লোকমানের বাড়ী পর্যন্ত রাস্তার সিসি ঢালাই করা হয়নি। টেন্ডার অনুযায়ী কাজ না করে করা হয়েছে দুর্নীতি ও অনিয়ম। গ্রামবাসী এর প্রতিবাদ করলে ক্ষিপ্ত হয় মইন মেম্বার। দীর্ঘদিন ধরে নির্বাচন না হওয়ায় দিন দিন মইন মেম্বার স্বৈরাচারী হয়ে উঠেছে। তার বিরুদ্ধে গ্রামের সহজ সরল মানুষ কথা বলার সাহস পায় না। ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে ১নং মোল্লারগাঁও ইউনিয়নের সোনাহর আলীর বাড়ির মুখ হতে ১৬০ ফুট রাস্তায় বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়েছে, বশির মিয়ার বাড়ির সামন হতে আছদ্দর মড়লের বাড়ি সংলগ্ন ব্রিজ পর্যন্ত ৬০০ ফুট রাস্ত ধ্বসে হয়ে পড়েছে, চাঁন মিয়ার বাড়ির দক্ষিণ মুখ পূর্ব দিকের লতিপুর রাস্তার সংযোগ রাস্তাটি বেহাল দশা।

উক্ত রাস্তাগুলো কাজের দায়িত্বে ছিলেন মেম্বার মইন। এছাড়াও বেটুয়ারমুখ এলজিআইডি সড়ক হতে হারিছ মিয়ার বাড়ি মুখ পর্যন্ত ১৪০ ফুট রাস্তা সিসি ঢালাই করার কথা থাকলেও শুধু বালু দিয়ে কাজ শেষ করা হয়েছে । অথচ এই প্রকল্পের বারাদ্দৃকৃত টাকা তার নিজ বাড়িতে যাতায়াতের ব্যক্তিগত ৫০০ ফুট রাস্তা সিসি ঢালাই কাজে লাগিয়ে মেম্বার মইন । যা সম্পূর্ণ বেআইনি ও দুর্নীতির মধ্যে পড়ে। মইন উদ্দিন মেম্বার মাধ্যমে পূর্বে বাস্তবায়িত্ব রাস্তাগুলো বর্তমানে চলাচলে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এছাড়াও মেম্বার মইন উদ্দিনের বিরুদ্ধে হযরত শাহ জালাল লতিফিয়া পাঞ্জেগানা মসজিদের ২ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা আত্মসাত করায় বেটুয়ার মুখ গ্রামের মৃত ধন মিয়া ছেলে মোঃ কামাল আহমদ বাদী হয়ে দক্ষিণ সুরমা থানায় গত ১৮/১২/২০১৯ তারিখে মামলা দায়ের করেন। যার নং ২২/৩১৬/২০১৯।

দক্ষিণ সুরমা থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা বিজ্ঞ আদালতে প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন। সরকারি সম্পদ রক্ষা ও জনস্বার্থে বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্তপূর্ব দুর্নীতিবাজ মেম্বার মইন উদ্দিনের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানিয়েছেন অএ ওয়ার্ডের সর্বস্তরের মানুষ । এলাকার মুরব্বী ও যুব সমাজ জানান দীর্ঘদিন যাবৎ মইন মেম্বারের আচরণে অতিষ্ঠ ও ক্ষিপ্ত ওয়ার্ডবাসী। মইন মেম্বারের পদত্যাগ দাবী করেছেন ওয়ার্ডবাসী। ইতিমধ্যে বেটুয়ারমুখ গ্রামবাসী সিলেট জেলা প্রশাসক ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে মইন উদ্দিন মেম্বারের দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে স্মারকলিপি প্রদান করেছেন। রাস্তার অনিয়মের বিষয়ে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিন্টু চৌধুরী জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্তকারী কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হয়েছে। রাস্তার কাজে কোন অনিয়ম করার সুযোগ নেই। দুর্নীতি-অনিয়ম ব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে মেম্বারের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।