সিলেটের জাফলংয়ে প্রস্তাবিত ক্রাশার জোন পরিদর্শনে মন্ত্রী পরিষদের সচিব মোহাম্মদ কামাল হোসেন

 সালমান শাহ্‌,  গোয়াইনঘাট (সিলেট) প্রতিনিধি: সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার জাফলংয়ে প্রস্তাবিত ক্রাশার জোন পরিদর্শন করেছেন মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের সমন্বয় ও সংস্কার বিভাগের সচিব মোহাম্মদ কামাল হোসেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে তিন দিনের সফরে তিনি সিলেট এসেছেন। তিনি জাফলংয়ের প্রস্তাবিত ক্রাশার মেশিন জোন পরিদর্শন করেন। এর আগে তিনি সিলেটের বিভিন্ন পাথর কোয়ারিও পরিদর্শন করেছেন। এ সময় মন্ত্রী পরিষদের সচিব কামাল হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সিলেটের পাথর কোয়ারি এবং প্রস্তাবিত ক্রাশার মেশিন জোন পরিদর্শনে এসেছেন।
সরকারের পক্ষ থেকে ক্রাশার মেশিন গুলো নির্দিষ্ট একটি যায়গায় নেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহিত হচ্ছে। শুধু জাফলং বাসীর স্বার্থে নয় দেশের ষোল কোটি মানুষের স্বার্থে জাফলংয়ের সৌন্দর্য্যকে রক্ষা করতে হবে। স্টোন ক্রাশার মেশিন প্রকৃতি কন্যা জাফলংয়ের জন্য একটি অভিশাপ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই অভিশাপ থেকে জাফলংকে মুক্ত করতে নির্দিষ্ট একটি জোন তৈরি করার পরিকল্পনা রয়েছে। তাই প্রস্তাবিত জোনে স্টোন ক্রাশার মেশিন স্থানান্তরিত করে জাফলংয়ের রূপ লাবণ্যকে ফিরিয়ে আনতে হবে। তিনি বলেন, জাফলংয়ের অপর পাশেই ভারতের ডাউকি দৃষ্টি নন্দন একটি শহর। তার পাশেই আমরা প্রাকৃতিক পরিবেশ বিপর্যস্ত করে প্রায় সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস করে কত ঝঞ্জাল তৈরী করেছি। এই জাফলংয়ের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য ফিরিয়ে আনতে সড়ক ও জনপদ বিভাগ, পর্যটন বিভাগ, পরিবেশ অধিদপ্তর, জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় আমরা সবাই এক সাথে কাজ করবো। জাফলং হচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে দৃষ্টি নন্দন একটা জায়গা।
জাফলংয়ের রূপ লাবণ্য ফিরিয়ে আনতে পারলে এখানে পর্যটকদের জন্য একটি আকর্ষনীয় যায়গা তৈরী হবে। এলক্ষ্যে এখানে ট্যুরিজ্যমের উপর কাজ করে স্পেশাল ইকোনমিক জোন তৈরী করা হবে।প্রস্তাবিত ক্রাশিং জোন এলাকা পরিদর্শন শেষে মন্ত্রী পরিষদ সচিব পর্যটন কেন্দ্র জাফলংয়ের জিরো পয়েন্ট এলাকা ঘুরে দেখেন। এ সময় সিলেট বিভাগীয় কমিশনার মশিউর রহমান (এনডিসি), সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. আসলাম উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উত্তর) মাহবুবুল আলম, ইউএনও জৈন্তাপুর নাহিদা পারভীন, ইউএনও গোয়াইনঘাট মো. নাজমুস সাকিব, সহকারি কমিশনার (ভূমি) নূর হোসেন নির্ঝর, এএসপি গোয়াইনঘাট (সার্কেল) মো. নজরুল ইসলাম, গোয়াইনঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল আহাদ, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান লেবু, গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. সামসুল আলমসহ স্টোন ক্রাশার মিল মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় সচিব মো. কামাল হোসেন কোম্পানীগঞ্জের ভোলাগঞ্জ পাথর কোয়ারি পরিদর্শন করেন। এদিকে, মন্ত্রী পরিষদের সচিব মো. কামাল হোসেন ক্রাশার জোন পরিদর্শনে যাওয়ার সময় পাথর কোয়ারি খুলে দেয়ার দাবী নিয়ে সচিবের দৃষ্টিগোচরের জন্য জাফলং পাথর কোয়ারি সংশ্লিষ্ট কয়েক হাজার শ্রমিক কাজ চাই, ভাত চাই পাথর কোয়ারি সচল চাই লেখা বিভিন্ন প্লেকার্ড ও ফেস্টুন নিয়ে রাস্তার দুই পাশে দাঁড়িয়ে থাকেন।