সিলেটের ওসমানীনগরে বাস ও কারের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত পাঁচ জন

এনাম রহমান, সিলেট জেলা প্রতিনিধি: সিলেট ওসমানীনগরে বাস ও কারের মুখোমুখী সংঘর্ষে নিহত পাঁচজনই একই পরিবারের বলে জানা গেছে। আজ (৩১ জুলাই) শুক্রবার সকাল এগারো টায় ওসমানীনগর থানার বড়াইয়া চাঁনপুর নামক স্থানে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে।

ঈদুল আযহার একদিন আগে এই সড়ক দুর্ঘটনা কারোরই কাম্য নয়। নিহতরা হলেন মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার সাতগাঁও ইউনিয়নের লইয়াকুল গ্রামের স্বপন কুমার দাস ও তার স্ত্রী লাভলী রানী দাস এবং তাদের তিন সন্তান।

নিহত সবাই একিই পরিবারের হওয়াতে দুর্ঘটনা স্থলে শোকের ছায়া নেমে আসে। তাদের আরেক সন্তানকে গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট এম.এ.জি ওসমানী হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে ওসমানীনগর থানা পুলিশের সুত্রে জানা যায়, সিলেটগামী কার যার নং (চট্র মেট্রো- গ ১১-১৯২০) ও ঢাকাগামী কুমিল্লা ট্রান্সপোর্ট এর মধ্যে মুখোমুখী সংঘর্ষে কারে থাকা পাঁচজনই ঘটনাস্থলে নিহত হোন।

দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে, ওসমানীনগর থানার সেকেন্ড অফিসার সুজিত চক্রবর্তী জানান, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে কাটার মেশিন দিয়ে প্রাইভেট কার ও বাসের সামনের অংশ কেটে মৃতদের বের করে নিয়ে আসা হয় এবং নিহত ও আহতদের সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শী একজন প্রতিবেদকে জানান বেপরোয়া গতিতে বাস যাচ্ছিলো।