সিংড়ায় ঘাস কাটা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে, মহিলাসহ আহত -১৫

আবু সাঈদ, সিংড়া প্রতিনিধিঃ নাটোরের সিংড়ায় ঘাস কাটা নিয়ে দু পক্ষের মধ্য কথা কাটাকাটি এক পর্যায়ে সংঘর্ষে রুপ নেওয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় ১৫ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গুরুত্বর আহত আব্দুল লতিফ (৪০) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীণ রয়েছে।

সোমবার দুদফায় প্রতিপক্ষের হামলায় মহিলা সহ প্রায় ১৪/১৫ জন আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সুকাশ ইউনিয়নের লক্ষিকোলা গ্রামে।

আহতদের সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। আহতরা হলেন,    খাদেম ( ৫০), বারিক (৩৫), নজরুল ( ৪৫), আমিনুল (৩৫), রাসেল ( ২৫), আলমগীর হোসেন ( ৩২), নাজমুল (৩০), রুস্তম মৃধা (৫০), সালেহা (৫০)মানসুরা (৪০), হাফিজা (৬০), আলেয়া (৮০) ও আব্দুল লতিফ (৪০)।

জানা যায়, সকাল ১১ টার দিকে খাদেম গরুর ঘাস কাটতে গেলে শরিফুলের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায় বারিককে মারপিট করে। পরে শরিফুল, খালেক, মহিদুল, মোতালেব ও বেলালের নেতৃত্বে সংঘবদ্ধ হয়ে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে। এসময় বেশ কয়েকজন আহত হয়। এ ঘটনা উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।
বিকেলে আজিজ ও কাজলের নেতৃত্বে ২০/২৫ পুনরায় আব্দুল লতিফ ও নজরুলের বাড়ি হামলা ও লুটপাট চালায়।

এসময় নগদ টাকা, সোনা, গহনা ও আসবাবপত্রসহ প্রায় ২ লক্ষ টাকা লুটপাট করে তারা।

স্থানীয় ইউপি সদস্য বাবুল জানান, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বড় ধরনের সংঘর্ষের রুপ নিয়েছে। এ বিষয়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার আইনগত সহায়তা নিতে যাচ্ছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

সিংড়া থানার ওসি নুরে আলম সিদ্দীকি জানান, ঘাস কাটা নিয়ে দু পক্ষের বিরোধে এধরনের ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।