সারাদিন গৃহস্থালি কাজ, বন্ধুদের মত ঘুরতে না পেরে ক্ষোভে কলেজ ছাত্রের আত্মহত্যা

মাহফুজুর রহমান বাপ্পী, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি: বাগেরহাটের শরণখোলায় হাফিজুর রহমান (১৭) নামের এক কলেজ ছাত্র গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। রোববার দিবাগত রাত ৯টার দিকে উপজেলার ধানসাগর ইউনিয়নের শৈলাবুনিয়া গ্রামে এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে।

হাফিজুর ড. মাসুম বিল্লাহ কারিগরি কলেজের ১ম বর্ষের ছাত্র ও শৈলাবুনিয়া গ্রামের ছত্তার তালুকদারের ছেলে । সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য তপু বিশ্বাস জানান, হাফিজুর রহমানের মায়ের মৃত্যুর পর তাকে প্রায়ই রান্না করাসহ বিভিন্ন পারিবারিক কাজকর্ম করতে হতো। একারনে বিভিন্ন সময় তার মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হতো। ওইদিন বাড়িতে কেউ না থাকায় প্রতিদিনের ন্যায় হাফিজুর একা সন্ধ্যা থেকে গরু-ছাগল, হাস-মুরগির খাবার দেয়াসহ পারিবারিক কাজকর্ম করছিল।

এরপর রাত হওয়ায় তার কোন সাড়া-শব্দ পায়নি প্রতিবেশীরা। রাত ৯টার দিকে তার পিতা ছত্তার তালুকদার বাড়িতে এসে ছেলেকে ডাকাডাকি করলেও কোন সাড়া পাচ্ছিল না। পরে ঘরের দরজা ভেঙ্গে আড়ার সাথে গলায় ফাঁস দেয়া আবস্থায় ছেলের মৃতদেহ ঝুলতে দেখেন। ধারনা করা হচ্ছে, প্রতিনিয়ত পারিবারিক কাজ করতে গিয়ে বন্ধুদের মতো ঘুরে বেড়াতে না পেরে তার মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

এরপর অভিমান করে সে আত্মহত্যা করে। শরণখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ এসকে আব্দুল্লাহ আল সাইদ জানান, এ ব্যাপারে একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় লাশ স্থানীয়ভাবে দাফন দেয়া হয়েছে।