সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ঐতিহ্যের দেশ বাংলাদেশ

মোঃ নাজমুল ইসলাম নয়ন, দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল বলেছেন, ‘সা¤প্রদায়িক স¤প্রীতি ঐতিহ্যের দেশ বাংলাদেশ ধর্ম যার যার কিন্তু উৎসব সবার। আমাদের দেশে হিন্দু বৌদ্ধ মুসলমান খ্রিষ্টান কোনো ভেদাভেদ নেই।

তিনি বলেন, হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্ট ইতিমধ্যে জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় দেশের সংখ্যালঘুদের সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, উপাসনালয় সংস্কার কল্পে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। আমাদের একটি বিষয়ে সকল শ্মশান কমিটি, মন্দির কমিটিকে খেয়াল রাখতে হবে যে একটি ভূমিদস্যু তারা বিভিন্নভাবে অপচেষ্টায় লিপ্ত আছে। সরকারের পাশাপাশি শক্ত অবস্থান গ্রহণ করতে হবে।

কারণ তাদের সম্পদ রক্ষার্থে সর্বাত্মক চেষ্টা অবশ্যই কমিটির পক্ষ থেকে থাকতে হবে। আমরা সকল ধর্মের মানুষ মুসলমান হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান একসাথে ভাই-ভাই হিসেবে বসবাস করছি এটি সমগ্র বাংলাদেশের চিত্র। ‘এখানে কখনো কোনো ভেদাভেদ ছিল না, ভবিষ্যতেও থাকবে না, কেউ এই সোহার্দো-পূর্ন সম্পর্ক নষ্ট করলে আপামোর জনতা তাদের আস্থাকুরে নিক্ষেপ করবে ।

বাংলাদেশ হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাষ্টের উন্নয়ন কল্পে দিনাজপুর রাজবাটী গর্ভেশ্বরী শ্মশান ঘাট ও কালী মন্দির পরিদর্শনকালে উপরোক্ত কথা বলেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পুজা উদযাপন পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার, মাই টিভির দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি মুকুল চট্টপাধ্যয়, রাজবাটী গর্ভেশ্বরী শ্মশান ঘাট এর সাধারন সম্পাদক মিহীর ঘোষসহ স্থানীয়রা ।