সাংবাদিক ও শিক্ষক মোহাম্মাদ কামাল হোসেনর ইন্তেকাল

বাবুল সিকদার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি : আশুগঞ্জ সরকারি ফিরোজ কলেজের ইতিহাস বিভাগের প্রধান মোহাম্মাদ কামাল হোসেন ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

রোববার (১৯ জুলাই) দুপুরে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ইন্তেকালের সময় তার বয়স হয়েছিল ৪৫ বছর। তিনি মা, বাবা, স্ত্রী, ১ পূত্র এবং ২ কন্যা সন্তানসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মোহাম্মাদ কামাল হোসেন কলেজের প্রতিষ্ঠাতা মোঃ ফিরোজ মিয়ার জ্যেষ্ঠ পূত্র। তার পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, তিনি দীর্ঘদিন যাবত শ্বাসকষ্টজনিত রোগে ভূগছিলেন।

আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাজিমুল হায়দার জানান, কামাল হোসেনের পরিবারের লোকজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে ঢাকায় হাসপাতালে ভর্তি হবার পর তার কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফলাফল পজেটিভ এসেছে। ঢাকা থেকে তার লাশ আশুগঞ্জে পৌঁছার পর উপজেলা করোনায় মৃত্যুর লাশ দাফন কমিটির তত্ত্বাবধানে মরহুমের জানাজা ও দাফন সম্পন্ন করা হবে বলে তিনি জানান।

উল্লেখ্য মোহাম্মদ কামাল হোসেন শিক্ষকতার পাশাপাশি সাংবাদিকতা ও বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে জড়িত ছিলেন।

তিনি সাপ্তাহিক আশুগঞ্জ সংবাদের সম্পাদক ও প্রকাশক, আশুগঞ্জ পাবলিক লাইব্রেরির সেক্রৈটারি ও রোটারি ক্লাব অব আশুগঞ্জের প্রেসিডেন্ট ছিলেন।