সহকারী পুলিশ কমিশনার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত চট্টগ্রামে

মোঃরাশেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রাম নগর পুলিশের (সিএমপি) এক সহকারী কমিশনার করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়েছেন। এই প্রথম সিএমপির কোনো কর্মকর্তা আক্রান্ত হলেন।

বুধবার চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিভাসু) ল্যাবে করা নমুনা পরীক্ষায় ওই কর্মকর্তার ফলাফল পজিটিভ এসেছে বলে জানিয়েছেন সিএমপির উপ-কমিশনার (জনসংযোগ) আবু বক্কর সিদ্দিক।

তিনি বলেন, “আক্রান্ত এক সদস্যের সংস্পর্শে আসায় গত ২৯ এপ্রিল এই কর্মকর্তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল পরীক্ষার জন্য। বুধবার তার নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ এসেছে।”

এছাড়াও ট্রাফিক উত্তর বিভাগের এক কনস্টেবলের ফলাফলও পজিটিভ এসেছে বলে জানান এডিসি বক্কর।

নগর পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, ওই সহকারী কমিশনারকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছিল। পাশাপাশি ২৯ এপ্রিল তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বুধবার তার কোয়ারেন্টিনের শেষ দিনে (১৪ দিন) নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ এসেছে।

তবে ওই পুলিশ কর্মকর্তা সুস্থ আছেন এবং তার মধ্যে কোনো উপসর্গও নেই বলে জানান তিনি।

এনিয়ে চট্টগ্রাম নগর পুলিশের ১৯ জন সদস্য কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন।

আক্রান্তদের মধ্যে ১৩ জন ট্রাফিক উত্তর বিভাগের, একজন বন্দর বিভাগের কনস্টেবল। এছাড়াও এসএএফ শাখার দুইজন, বিশেষ শাখার দুইজন ও খুলশী থানার একজন করে সদস্য রয়েছেন।

এদের মধ্যে বুধবার একজনসহ মোট ছয়জন সুস্থ হয়েছেন বলে জানান এডিসি বক্কর।

বুধবার সিভাসুর ল্যাবে করা ১২২টি নমুনা পরীক্ষার ফলাফল জানানো হয়েছে। তার মধ্যে শ্রীলঙ্কান এক নাগরিকসহ ২২ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এদের মধ্যে দুই পুলিশ ও তিন কোস্টগার্ড সদস্যসহ চট্টগ্রাম জেলার ১৪ জন।

বাকীদের মধ্যে চারজন রাঙামাটির, নোয়াখালীর দুইজন এবং লক্ষ্মীপুর ও ফেনীর একজন করে বলে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, চট্টগ্রাম জেলার ১৪ জনের মধ্যে একজন পুরনো রোগী। বাকীদের মধ্যে বাশঁখালী উপজেলার দুইজন, সাতকানিয়া, হাটহাজারি, সীতাকুণ্ড, মিরসরাই উপজেলার একজন করে রয়েছে।

এছাড়া বিআইটিআইডি ও ফিল্ড হাসপাতালের একজন করে রয়েছেন বলে জানান সিভিল সার্জন।

সব মিলিয়ে চট্টগ্রাম জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১২৪ জনে।