সলঙ্গায় বিয়ের দাবিতে অনশন অতঃপর আড়াই লক্ষ টাকায় রফা দফা

মোঃ জাকির হোসাইন, চলনবিল প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের রহিমাদ গ্রামের আঃ সাত্তারের ছেলে জাহিদের বাড়িতে এক স্কুল ছাত্রী বিয়ের দাবিতে অনশন করেছে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ২৩ জুলাই, সকালে সলঙ্গা থানার নলকা ইউনিয়নের কালিপুর গ্রামের আবু বক্কার প্রাং এর মেয়ে মাহমুদা খাতুন(১৬) এর সঙ্গে প্রেমিক জাহিদের সাথে পরিচয় হয়-সলঙ্গা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের লেখা পড়া সুবাধে।।

একপর্যায়ে তাদের মধ্যে গভীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। প্রেমিক জাহিদ কথা দিয়েছিলো,প্রেমিকা মাহমুদা খাতুনকে বিয়ে করে ঘরে তুলবেন। প্রেমিকের আশ্বাস পেয়ে প্রেমিকা তার সাথে শারীরিক সম্পর্কেও জড়িয়ে ছিলেন,বলে জানান প্রেমিকা মাহমুদা। কিন্তু শেষমেষ কথা রাখেননি প্রেমিক জাহিদ। অবশেষে প্রেমিকা বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করে।

ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে গতকাল সন্ধ্যায় স্থানীয় একটি প্রভাবশালী একটি শালিশ বসায় সেখানে প্রেমিকার ইজ্জত এর বিনিময়ে আড়াই লক্ষ টাকায় রফাদফা করে। সে সময় ১লক্ষ টাকা নগদে বুঝিয়ে দিয়ে ১লক্ষ ২০ হাজার টাকা ১৫ দিনের সময় নিয়ে প্রমিকার বাবা ও শালীশকারকরা মিয়েকে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে গনমাধ্যম কর্মীরা প্রতারক জাহিদ এর পরিবারের সাথে কথা বলতে চাইলে-সাংবাদিকদের সাথে কোন কথা বলবেন না বলে গেট বন্ধ করে দেন।