সব দিকে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি এখন নির্বাচন কমিশনকে দুষছে: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির ভেতরে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষ ও বিপক্ষ তৈরি হয়েছে।

সোমবার (২১ ডিসেম্বর) রাজধানীর আইডিইবি মিলনায়তনে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত বিজয় দিবসের আলোচনায় ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি জনগণের পক্ষে রাজনৈতিক কর্মসূচি দিতে ভুলে গেছে। বিএনপি দোটানায় রয়েছে। দলের ভেতরে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষ ও বিপক্ষ তৈরি হয়েছে। এমন সময় দেশ ও জনগণের কথা ভাবার সময় নেই তাদের।

‘বিএনপি এখন সবদিক থেকে ব্যর্থ হয়ে নির্বাচন কমিশনকে বিতর্কিত করতে চায়। নেতিবাচক মন্তব্যের কারণে দেশের জনগণ বিএনপিকে প্রত্যাখ্যান করেছে। পোলিং এজেন্ট না দিয়ে নির্বাচনে যোগ দিয়ে দুপুর বেলা তারা নির্বাচন বর্জন করে। মূলত নির্বাচন কমিশনকে বির্তকিত করতে তারা নির্বাচন বর্জন করে। ’

তিনি আরও বলেন, প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ সবাই যদি বিএনপির লোক হয়, তাতেও কোনো লাভ হবে না। কমিশন তো ভোট দেবে না। ভোট দেবে জনগণ। সেই জনগণই বিএনপিকে প্রত্যাখ্যান করেছে। সেই জনগণের উপর প্রতিশোধ নিতেই বিএনপি আগুন সন্ত্রাসের পথ বেছে নিয়েছে। তাদের এ অপচেষ্টা হালে পানি পাবে না।

বিএনপির মহাসচিবের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আপনারা দিনের আলোয় রাতের অন্ধকার দেখতে পান। আসুন, শেখ হাসিনার সুশাসনের অভিযাত্রায় সহযাত্রী হন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, এ দেশের দুইটি লিগ্যাসি রয়েছে। একটি জাতির পিতার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের, অন্যটি শেখ হাসিনার। যতদিন এ জনপদ থাকবে, ততদিন এই লিগ্যাসি থাকবে।

তিনি আরো বলেন, স্বাধীনতার সূর্বণজয়ন্তীতে বাংলাদেশ আর্থ-সামাজিক সকল সূচকে পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে গেছে। এখন পাকিস্তানের সংসদে বাংলাদেশকে নিয়ে আলোচনা হয়। সে বাংলাদেশকে তারা ২৪ বছর শোষন করেছে, সোনার বাংলাকে শ্মশানে পরিণত করেছে, পাকিস্তান এখন সেই বাংলাদেশ হতে চায়।