সন্তান এলেও ততক্ষণে বাবার দু’চোখের পাতা খোলার সময় ফুরিয়ে গেলো

 মোঃ রাশেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ প্রত্যেক বাবা মায়ের অস্তিত্ব ও স্বত্তায় বিরাজিত থাকে তাদের অতি আদরের সন্তান-সন্ততিরা। তেমনি এক অন্তিম মুহূর্তে আদরের প্রিয় সন্তানকেই দেখার আকুতি জানান এক হতভাগা বাবা। কিন্তু ললাটের নির্মম পরিহাস, দু’চোখ মেলে দেখা হয়নি আর সেই প্রিয় সন্তানকে। সন্তান হাজির হলেও ততক্ষণে বাবার দু’চোখের পাতা খোলার সময় ফুরিয়ে গেলো।

এমন হৃদয় বিদারক ঘটনাটি ঘটলো ১৭ জুন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হাসপাতালে। এ হাসপাতালের সিনিয়র আবাসিক মেডিকেল অফিসার মহেশখালীর সন্তান ডা. নুরুল হক। তার পারিবারিক সূত্র জানায়, প্রয়াত ডা. নুরুল হকের ২ সন্তান রয়েছে। করোনা রোগীদের সেবা দিতে গিয়ে নিজেই করোনা আক্রান্ত হয়ে নিজের কর্মস্থল হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় ১৬ জুন শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

তাকে যখন আইসিইউতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল তখন তিনি তার ছোট বাচ্চাটিকে দেখার আকুতি জানান। সাথে সাথে খবর দিয়ে বাচ্চাটিকে বাসা থেকে আনার ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু কাছে নিয়ে আসার আগেই তার অবস্থার অবনতি হয়ে যায়। পরে ১৮ জুন সকাল ৬.৪৫ মিনিটে তিনি না ফেরার জগতে চলে যান। ফলে পূরণ হলো না তার সন্তানকে দেখার ইচ্ছা।