শ্রীপুরে দুই নারী পোশাক শ্রমিককে গণধর্ষনের অভিযোগে গ্রেফতার ৪

 মোহাম্মদ আদনান মামুন, শ্রীপুর প্রতিনিধি:  গাজীপুরে শ্রীপুরে পরিত্যক্ত খামারে নিয়ে দুই নারী পোশাক শ্রমিকে গণধর্ষণ করেছে বখাটেরা। এ ঘটনায় অভিযুক্ত চার যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। (২১ আগস্ট শুক্রবার) শ্রীপুর উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের বিধাই গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে। গ্রেফতাররা হলেন- উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের বিধাই গ্রামের আব্দুল বারেকের ছেলে শাহিনুর (৩০), একই গ্রামের আয়ুব আলী ঢালীর ছেলে আবুল কালাম (২৬), বিল্লাল হোসেনের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৩০), নূরুল ইসলামের ছেলে মোকসেদুল (৩০)। এরা সবাই পেশায় সিএনজি চালক।
জানা যায়, ২১ আগস্ট শুক্রবার বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে উপজেলার ভ্রমরাবিটা নামক জায়গায় নিয়ে পরিত্যক্ত মুরগির খামারের দুটি কক্ষে নিয়ে রাতভর পাঁচ বন্ধু মিলে পালাক্রমে ধর্ষণ করে দুই নারী শ্রমিককে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (ওসি, অপারেশন ) গোলাম সারোয়ার জানান, রোববার ভোররাতে অভিযুক্ত ওই চার আসামিদের আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় অপর আসামীকে গ্রেফতারে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। এঘটনায় গণধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
সেই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, গ্রেপ্তারকৃত শাহীনুরের সাথে পাশ্ববর্তী ভালুকা উপজেলার একটি পোশাক কারখানার নারী শ্রমিকের সাথে মুঠোফোনে পরিচয় হয়। এরপর তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। গত শুক্রবার রাতে ওই নারী পোশাক শ্রমিককে শাহীনুর দেখা করার জন্য তার বাড়িতে মুঠোফোনে ডেকে নেয়। এসময় ওই নারী পোশাক শ্রমিক তার অপর বান্ধবীকে নিয়ে প্রেমিকের সাথে দেখা করতে আসলে শাহীনুর তার বন্ধু জাহাঙ্গীরকে নিয়ে তাদের জিম্মি করে পাশের শালবনের ভেতরে পরিত্যক্ত খামারে নিয়ে যায়। এরপর শাহীনুরের সাথে আরো চার বন্ধু যোগ দেয়। পরে রাতভর ওই পোশাক শ্রমিক ও তাঁর বান্ধবীকে পালাক্রমে ধর্ষন করে তারা। এ ঘটনায় চারজনেক গ্রেপ্তার করা হয়েছে ও বাকি একজন আসামীকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।