শেরপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলো এসপিসহ পুলিশ সদস্যরা

সোহেল রানা, শেরপুর প্রতিনিধি: শেরপুরে জেলা পুলিশের উদ্যোগে বোরো ধান কাটা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে সদর উপজেলার বাজিতখিলা ইউনিয়নের বালিয়া গ্রামে ধান কাটা উৎসবের উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার (এসপি) কাজী আশরাফুল আজীম।

এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বাজিতখিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আমীর আলী সরকার। উদ্বোধনী দিনে জেলা পুলিশ সুপারসহ পুলিশ সদস্য ও স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের অর্ধশত সদস্যরা ধান কেটে দেন। এছাড়াও নকলা উপজেলায় বিকালে এই উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

পুলিশ ও স্বেচ্ছাসেবীরা ধান কেটে দেওয়ায় খুশি কৃষক ছামেদুল হক বলেন, বোরো ধান আবাদে জমানো সব টাকা খরচ হয়ে গিয়েছিল। হাতে তেমন টাকা ছিল না। তার ওপর শ্রমিকের অভাব। ফলে ধান কাটা সম্ভব হচ্ছিলনা। এমন সময় পুলিশসহ অন্য ভাইয়েরা তার পাশে এসে দঁাড়িয়েছেন। এজন্য তঁাদের অনেক ধন্যবাদ জানান তিনি।

ধান কাটা উৎসবের উদ্বোধন করে পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম বলেন, করোনা ভাইরাসের প্রকোপে সারা দেশ এখন স্থবির। এই পরিস্থিতিতে শেরপুর জেলায় বোরো ধান পাকতে শুরু করেছে। কিন্তু লকডাউনের কারণে শ্রমিক সংকটে অনেক কৃষকই ধান কাটতে পারছেন না। তাই জেলা পুলিশের উদ্যোগে পুলিশ সদস্যসহ স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছেন। যখনই যে কৃষক ধান কাটা সমস্যায় পড়বেন, তাৎক্ষণিক পুলিশকে জানালে তার ধান কেটে দেওয়া হবে।

এ সময় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শোয়েব হাসান, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম ও জেলার গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।