শিক্ষার্থী আনুশকার দাফন সম্পন্ন

ধর্ষণের পর হত্যার শিকার রাজধানীর ধানমন্ডির মাস্টারমাইন্ড স্কুলের ‘ও’ লেভেলের শিক্ষার্থী আনুশকা নুর আমিনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

শনিবার (৯ জানুয়ারি) সকাল ৭টায় তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়া সদরের গোপালপুর গ্রামে জানাজা শেষে গোপালপুর গোরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

জানাজায় আনুশকার পরিবারের সদস্য, আত্মীয়স্বজন ও গ্রামবাসী অংশ নেয়। তার দাফন শেষে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন স্থানীয়রা।

ঢাকা মহানগর পুলিশের একটি সূত্র বলছে, ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) দুপুরে ধর্ষণের শিকার কিশোরীটি অচেতন হয়ে পড়লে দিহান প্রথমে কিশোরীর মাকে ফোন করে। তখন কিশোরীর মা তাকে দিহান বলেই সম্বোধন করেন। দিহান যখন কিশোরীর অচেতন হওয়ার কথা জানায়, তখন কিশোরীর মা জানতে চান তারা কোথায় আছে। দিহান উত্তরে নিজের বাসার কথা বললে কিশোরীর মা বলেন, বাসায় আর কে কে আছেন? দিহানের উত্তর আমরা দুজন, তিনি আবার বলেন, ফাঁকা বাসায় তোমরা দুজন কী করছো?

এর আগে, ওই স্কুলছাত্রীকে (১৭) ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় তার ‘বন্ধু’ তানভীর ইফতেফার দিহানকে (১৮) একমাত্র আসামি করে কলাবাগান থানায় মামলা করেন নিহতের বাবা আলামিন। এ ঘটনায় হাসপাতাল থেকে আটক দিহানের তিন বন্ধুকেও জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

যার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ সেই কথিত প্রেমিক ফারদিন ইফতেখার দিহান আদালতে দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।