শাহজাদপুরে মাইক্রোবাস ও সিএনজির সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৩

মাহবুবুল আলম, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ)প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের সড়ক দুর্ঘটনায় ফিরোজা খাতুন (৪৭) নামের এক নারী নিহত হয়েছে।

এই ঘটনায় নিহতের স্বামী ও ছেলেসহ সিএনজি চালক আহত হয়েছেন। নিহত ফিরোজা খাতুন কামারখন্দ

উপজেলার মোঃ গিয়াস উদ্দিনের স্ত্রী। প্রত্যাক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রবিবার (২৫ জুলাই) সকাল আনুমানিক ৬.৪৫ মিনিটে

বগুড়া-নগরবাড়ি মহাসড়কের শাহজাদপুর উপজেলার মাদলা নামক স্থানে মাইক্রোবাস ও সিএনজির মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়।

এই ঘটনায় সিএনজি চালকসহ তিনজন যাত্রী আহত হয়। ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে

শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফিরোজা খাতুনকে মৃত ঘোষনা করেন।

এই দুর্ঘটনায় আহত অন্যান্যরা হলো- কামারখন্দের মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন ( ৫৫) ও তার ছেলে মোহাম্মদ ওমর ফারুক,

সিএনজি চালক শাহজাদপুর উপজেলার নরিনা গ্রামের মোঃ আব্দুর রহমান (৫৫)। জানা যায় দুর্ঘটনা কবলিত

মাইক্রোবাসের উপর “বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও পানিসম্পদ ব্যবস্থাপনায় কাজে নিয়োজিত” স্টিকার লাগানো ছিল।

মাইক্রোবাসটির নম্বর (ঢাকা মেট্রো চ ৫৩-৭১৪৬)। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে হাটিকুমরুল হাইওয়ে পুলিশ এসআই আবদুল্লাহিল বাকী নেতৃত্বে

একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানা এসআই আবদুল্লাহিল বাকী জানান,

মাইক্রোবাস এবং সিএনজি দুটি আমাদের হেফাজতে রয়েছে তবে মাইক্রোবাসের উপর যে স্টিকার লাগানো আছে

তাতে আমাদের ধারনা লকডাউনের মুহূর্তে গাড়ির যাতায়াতের সুবিধার্থে এই স্টিকার লাগানো হতে পারে। তিনি আরো বলেন,

আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজে ২ জনকে এবং ১ জনকে খাঁজা ইউনুস আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।