লালমোহনের করোনায় আক্রান্ত প্রথম রোগীর বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে গেলেন এমপি শাওন

হাসান পিন্টু, ভোলা (দক্ষিণ) প্রতিনিধি: ভোলার লালমোহনে প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত হওয়ায় ৬ ঘর লকডাউন করা হয়েছে। রোববার রাতে উপজেলার ফরাজগঞ্জ ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের মহেষখালী গ্রামের চাচাই বাড়িতে আসমা (২২) নামের এক সন্তানের জননীর করোনা পজেটিভ আসে। খবর পেয়ে রাত ৯টায় ওই বাড়িতে ছুটে যান ভোলা-৩ আসনের এমপি নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাবিবুল হাসান রুমি, ওসি মীর খায়রুল কবীর ও স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তাগণ।

আসমার জন্য এমপি শাওনের পক্ষ থেকে ১৪ দিনের জন্য খাদ্য সামগ্রী ও ইফতার উপহার দেওয়া হয়। এসময় আসমার বাড়ির আরো ৫ ঘরসহ মোট ৬ ঘর লকডাউন করলে প্রত্যেক ঘরের জন্য খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়। জানা গেছে, আসমা স্বামী মনজু ঢাকা গাড়ি চালাতো। আসমা গার্মেন্টে কাজ করতো। ২ মাস আগে তারা বাড়ি আসে। আসমা তার বাবার বাড়ি ফরাজগঞ্জ ইউনিয়নের মহেষখালী গ্রামের চাচাই বাড়িতেই থাকতো। তার স্বামী বাড়ি পার্শ্ববর্তী উপজেলা চরফ্যাশনের দুলারহাটের মুন্সির হাট গ্রামে।

সেখানে আসমা থাকতো না। তার কয়েকটি উপসর্গ দেখা দিলে তার নমুনা নেওয়া হয়। রোববার ওই রিপোর্ট পজেটিভ আসে। আসমার শারীরিক অবস্থা বর্তমানে ভালো রয়েছে। রাতে এমপি শাওনসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা ওই বাড়িতে গেলে আসমা ঘরের বারান্দায় এসে সাবলিলভাবে কথা বলেন। জানান তিনি সুস্থ্য রয়েছেন। তার দেড় বছরের মমিনা নামে এক মেয়ে শিশু রয়েছে। করোনা পজেটিভ আসায় এখন এই শিশুসহ ঘরের লোকজনের ঝুঁকি বেড়ে গেলো। তবে আসমাকে ভিন্ন থাকার জন্য প্রশাসন থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়। পরবর্তীতে আবার নমুনা নেওয়া হবে।