লক্ষ্মীপুরে মিথ্যা মামলায় প্রবাসীর স্ত্রী গৃহবধু কারাগারে, প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

নুরুল আমিন দুলাল ভূঁইয়া, লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি:  লক্ষ্মীপুরে সাজানো মামলা প্রত্যাহার এবং কারাগারে আটক গৃহ বধূর মুক্তির দাবীতে পরিবারের স্বজনদের সংবাদ সন্মেলন । লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ৫নং পার্বতী নগর ইউনিয়নের ৯নং ওর্য়াড চর পার্বতী নগর গ্রামের জিন্নাত আলী মুন্সী বাড়ীর প্রবাসী আবুল কাশেমের স্ত্রী খুকি বেগমকে পূর্ব শত্রুতার জেরে সাজানো ষড়যন্ত্রমুলক নাটকীয় মামলা দিয়ে হয়রানী করার প্রতিবাদে স্ববজনরা মামলা প্রত্যাহার ও তাঁর মুক্তির দাবীতে বৃহস্পতিবার (৪ জুন ২০২০ইং) বিকেলে ওই বাড়ীর আঙ্গিনায় সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে সংবাদ সন্মেলন করেন ভূক্তভূগী পরিবার।

উক্ত সংবাদ সন্মেলনে কারাগারে অবস্হানরত খুকি বেগমের মেয়ে মায়েশা বেগম মর্জিনা বলেন,গত ১১ মে আমাদের পার্শ্ববর্তী নুর নবীর ১৮ মাস বয়সের ছেলে হাবিব অসুস্থ হয়ে পড়ে। হাবিবের মা শামছুন্নাহার সামুর সাথে আমার মা খুকি বেগমের সু সম্পর্ক ছিল। কখনো কোন বিরোধ ছিলনা। এরই সুবাধে হাবিবের মায়ের সাথে আমার মা  অসুস্থ হাবিবকে নিয়ে চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে যায়।ওই সময় শিশু হাবিবের অবস্হা খারাপ হলে পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় উন্নত চিকিৎসার জন্য।

শিশুটি কিসে আক্রান্ত হয়েছে সেটা না দেখে, মেডিকেল রিপোর্ট সংগ্রহ না করে কয়েক দিন পর বিষ ক্রিয়া ইনজেকশনের নাটক সাজিয়ে ষড়যন্রমুলক ভাবে একটি স্বার্থানেশী মহল শিশু হাবিবের দাদা লাতু মিয়াকে কৌশলে প্রভাবিত করে আমার মা কে মিথ্যা ও হয়রানীমূলক মামলা দিয়ে আটক করে কারাগারে পাঠায়। আমরার চাই সঠিক তদন্তেরর মাধ্যমে সত্য ঘটনা উঠে আসুক এবং অপরাধীদের শাস্তি হোক। এ ঘটনার সাথে আমার মা খুকি বেগম এবং আমাদের পরিবারের লোকজন জড়িত না।

আমার মা দোষী না হয়েও জেলে আছে। এ ঘটনার পর থেকে ষড়যন্তকারী চক্রের অন্যতম সদস্য স্থানীয় আটিয়া বাড়ীর মনির ও তার লোকজন প্রতিনিয়ত বাড়ী ঘরে এসে হামলা ও হত্যার হুমকী সহ আমাদেরকে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে হয়রানী করে আসছে প্রতিনিয়ত। আমরা এখন পরিবারের সবাই নিরাপত্তাহীনতা ভূগছি। আমার মা খুকি বেগমকে ষড়যন্র করে মিথ্যা ও সাজানো মামলা দিয়ে ফাঁসানো হয়েছে।ঘটনার তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের নিকট জোর দাবী করছি।

এ সময় খুকি বেগমের ৮ম শ্রেনীতে অধ্যায়নরত ছেলে রাহাত বলেন আমার মা ষড়যন্ত্র কারিদের পরিস্হিতির শিকার। আমার মা খুকি বেগমকে সন্দেহের বশত মামলায় জড়িয়ে গ্রেফতার করা হয়। আমি আমার নিদ্দোষ মায়ের মুক্তি দাবী করছি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, খুকি বেগমের ভাই আবুল কাশেম,মেয়ের জামাতা ফিরোজ মিয়াজি, বোন বকুল বেগম,শাহেনুর বেগম,মাহি আক্তার,ভাগনী জহুরা বেগম,ও বেবী বেগম সহ অন্যরা।