লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ঘূর্ণণিঝড় সুপার আম্পান থেকে রক্ষায় উপকূলীয় লোকদের নিরাপদ স্হানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে

নুরুল আমিন দুলাল ভূঁইয়া, লক্ষ্মীপুর  জেলা প্রতিনিধি:  লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপকূলীয় নদী তিরবর্তী এলাকার মানুষদের রক্ষাকল্পে, রায়পুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাবরীন চৌধূরী মানুষের জানমাল রক্ষার দ্রুত পদক্ষেপ নিয়েছেন। ঘূর্ণিঝড় “আম্পান” যখন ক্রমশ উপকূলীয় এলাকার দিকে অগ্রসর হচ্ছে। লক্ষ্মীপুর জেলাকে ইতিমধ্যেই ১০নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। রায়পুর উপজেলার নদীতীরবর্তী এলাকাসহ উপজেলার সকলকে সচেতন হওয়ার এবং সজাগ থাকার জন্য আহবান করা হচ্ছে। গভীর সাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে অতিসত্ত্বর নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে বলা হয়েছে এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হচ্ছে।
ইতোমধ্যে নদীতীরবর্তী এলাকাগুলো প্রশাসনের পক্ষথেকে পরিদর্শশন করা হয়েছে। চর অঞ্চলের মানুষ এবং গবাদিপশু বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসা হচ্ছে। সকলকে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে। বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে অবস্থানরত সকলের জন্য শুকনো খাবার এর পাশাপাশি রোজাদারদের জন্য ইফতার ও খাবারের ব্যবস্থা করতে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণদের নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতির পাশাপাশি ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’ মোকাবিলায় সকলের সহযোগিতার কামনা করছেনন রায়পুর উপজেলা প্রশাসন। আসুন, সকল দূর্যোগে আমরা মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের কাছে ক্ষমা চাই এবং এই প্রার্থনা করি যে, তিনি সকল পরিস্থিতিতে আমাদের জান-মালের হেফাজত করুন।